আহত পুলিশকে বাঁচাতে ‘বীর’ মন্ত্রীর প্রচেষ্টা

আপডেট: মার্চ ২৪, ২০১৭, ১২:১২ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



লন্ডনে পার্লামেন্টের সামনে আততায়ীর ছুরিকাঘাতে প্রাণ হারিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তা পিসি কেইথ পালমার। তবে ওই মুহুর্তে তাকে বাঁচাতে ছুটে এসেছিলেন ব্রিটিশ পররাষ্ট্র দপ্তরের একজন মন্ত্রী এবং কনজারভেটিভ পার্টির এমপি টোবিয়াস এলউড।
তার এই ভুমিকার কারণে ‘বীর’ হিসেবে তাকে অভিহিত করছেন অনেকেই।
মি. এলউড একজন প্রাক্তণ সেনা কর্মকর্তা। ২০০২ সালে ইন্দোনেশিযার বালিতে বোমা হামলায় তার ভাইকে হারিয়েছেন তিনি। ছুরিকাঘাতে আহত মি. পালমারকে মুমূর্ষ অবস্থায় মুখে মুখ লাগয়ে বাতাস দেয়ার চেষ্টা করেন তিনি। তওবা টিভিতে ইসলামী অনুষ্ঠানের সময় পর্ন প্রচার
হঠাৎ করে শেখ হাসিনা কেন ‘র’-এর সমালোচনায় মুখর
তার দীর্ঘদিনের বন্ধু এবং কনজারভেটিভ এমপি অ্যাডাম আফ্রিয়াই বিবিসিকে বলেন, পুলিশ যখন সবাইকে নিরাপদে সরে যেতে বলছিল, তা সত্ত্বেও মি এলউডকে ছুটে যেতে দেখেন তিনি।
মি এলউড এর ওই সময়কার প্রকাশিত ছবিতে আহত পুলিশ কর্মকর্তার সাহায্য করার সময় তার রক্তমাখা হাত এবং মুখমন্ডল নজরে আসে।
তার এ ভুমিকায় অন্যান্য সহকর্মীরাও প্রশংসা করে তাকে বীরের মর্যাদা দিয়েছেন।
টুইটারে কনজারভেটিভ দলের এমপি বেন হাওলেট বলেন, “টোবিয়াস এলউড আজ দুপুরে পুলিশ সদস্যকে সাহায্যের জন্য যা করেছেন, তিনি প্রকৃই একজন নায়ক”।
লিবারেল ডেমোক্র্যাট নেতা টিম ফ্যারন বলেছেন, আজ টোবিয়াস সংসদ সদস্যদের জন্য সুনাম বয়ে আনলেন”।- বিবিসি বাংলা