ইঁদুর শিকারি চায় নিউইয়র্ক, বেতন ১ কোটি ৭৪ লাখ টাকা

আপডেট: ডিসেম্বর ৩, ২০২২, ৭:৫০ অপরাহ্ণ

প্রতীকী ছবি

সোনার দেশ ডেস্ক:


যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সিটিতে হঠাৎ ইঁদুরের উপদ্রব বেড়ে গেছে। এ থেকে বাঁচতে ইঁদুর শিকারি নিয়োগ দেবে নগর কর্তৃপক্ষ। আর সেই চাকরিতে বেতন হবে বার্ষিক ১ লাখ ৭০ হাজার ডলার পর্যন্ত, বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ ১ কোটি ৭৪ লাখ টাকার বেশি।

আগ্রহীদের প্রতি বার্তা দিয়ে নিউইয়র্কের মেয়র এরিক অ্যাডামস গত বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) এক টুইটে বলেছেন, আমি সবচেয়ে বেশি অপছন্দ করি ইঁদুরকে। আপনার যদি নিউইয়র্ক সিটির ইঁদুরগুলোর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য প্রয়োজনীয় প্রেরণা, সংকল্প এবং হত্যাকারী প্রবৃত্তি (কিলার ইনস্টিংক্ট) থাকে- তাহলে আপনার জন্য ‘স্বপ্নের চাকরি’ অপেক্ষা করছে।

এ বিষয়ে ‘ইঁদুর প্রশমন পরিচালক’ পদে নিয়োগের জন্য চাকরির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে নিউইয়র্ক সিটি মেয়রের কার্যালয়। সেখানকার মুখপাত্র জানিয়েছেন, নিয়োগপ্রাপ্ত এ কর্মকর্তা সরাসরি ডেপুটি মেয়র মীরা জোশির কাছে রিপোর্ট করবেন এবং তার বেতন হবে ১ লাখ ২০ হাজার থেকে ১ লাখ ৭০ হাজার ডলারের মধ্যে।

তবে শর্ত হচ্ছে, আবেদনকারীদের অবশ্যই নিউইয়র্ক সিটির বাসিন্দা হতে হবে। ব্যাচেলর ডিগ্রির পাশাপাশি থাকতে হবে মাইক্রোসফট ওয়ার্ড, এক্সেল এবং পাওয়ারপয়েন্টে পারদর্শিতা।

আবেদনের যোগ্যতা হিসেবে আরও কিছু বিষয় যোগ করা হয়েছে, যা অনেকটাই অদ্ভুত। যেমন- বেপরোয়া মনোভাব, ধূর্ত হাস্যরস, বখাটেপনার আভাস এবং পোকামাকড়ের প্রতি তীব্র আগ্রহ থাকা লোকেরা এ চাকরিতে অগ্রাধিকার পাবেন।

নিউইয়র্ক পোস্টের প্রতিবেদন অনুসারে, এ বছরের যা প্রথম আট মাসে শহরে ইঁদুরের উৎপাতের অভিযোগ দুই বছর আগে একই সময়ের তুলনায় ৭০ শতাংশ বেড়ে গেছে। এ থেকে মুক্তি এবং শহর পরিষ্কার প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে নতুন ‘ইঁদুর অপসারণকারী’ নিয়োগ দিতে চায় সিটি কর্তৃপক্ষ।

চাকরির বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, সফল জনসম্পৃক্ততার কৌশল এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় উদ্ধত উপস্থিতি থাকলেও ইঁদুর আমাদের বন্ধু নয়। এটি রোগ ছড়ায়, বাড়িঘর ও তারের ক্ষতি করে, এমনকি মানুষের কাজ দখলের প্রচেষ্টায় রান্নাঘরের কর্মীদের গতিবিধি নিয়ন্ত্রণেরও চেষ্টা করে।

মেয়রের কার্যালয় বলেছে, ইঁদুরেরা এই কাজটিকে ঘৃণা করবে৷ কিন্তু ৮৮ লাখ নিউইয়র্কবাসী এবং নগর কর্তৃপক্ষ ইঁদুরের সংখ্যা কমাতে, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বাড়াতে এবং মহামারি প্রতিরোধে আপনার সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত।
তথ্যসূত্র: জাগোনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ