ইউনিস যখন ‘হাতেম তাই’!

আপডেট: জুলাই ১৪, ২০১৭, ১২:৪২ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


এ কীর্তি নেই পাকিস্তানের আর কারও। প্রথম পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান হিসেবে টেস্টে ১০ হাজার রানের মাইলফলক ছুঁয়েছেন ইউনিস খান। ইতিহাসে নাম লিখিয়েই অবসরে চলে গেছেন এক যুগ ধরে পাকিস্তানের মিডল অর্ডারকে ভরসা দেয়া এই ব্যাটসম্যান। ফেলা আসা দিনগুলোর স্মৃতি নিশ্চয়ই তাঁকে অনুপ্রেরণা দেবে সামনে এগোনোর। কিন্তু খেলোয়াড়ি জীবনের সবচেয়ে বড় স্মারকটিই হাতছাড়া করে ফেলেছেন ইউনিস। সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শিক্ষার উদ্দেশ্যে নিলামে তুলছেন ১০ হাজার রানের মাইলফলক ছোঁয়ার সময়ে হাতে থাকা ব্যাটটি!
চ্যাম্পিয়নস ট্রফির আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে গিয়েছিল পাকিস্তান। সেখানেই নিজেদের বিদায়ের ঘোষণা দিয়েছিলেন অধিনায়ক মিসবাহ-উল-হক ও ইউনিস। অবসরে যাওয়ার আগেই ইতিহাসের ১৩তম খেলোয়াড় হিসেবে টেস্টে ১০ হাজার রান পূরণ করেছেন ইউনিস। এমন উপলক্ষ যে জীবনে খুব বেশি আসে না, সেটা বোঝাই যায়। যে ব্যাটে ১০ হাজারতম রানটি নিয়েছেন, সেটি তো যক্ষের ধনের মতো রেখে দেওয়ার কথা নিজের কাছে। কিন্তু ইউনিস একটি এনজিওর কাছে তাঁর সে ব্যাট তুলে দিয়েছেন। নিলামে তুলে যে অর্থ পাবে, সেটা যেন শিশুদের শিক্ষার কাজে ব্যয় করতে পারে তারা।
শুধু ব্যাট নিলামে তুলেই দায়িত্ব সারেননি ইউনিস। সরকারের কাছ থেকে কদিন আগেই ১০ লাখ রুপি পেয়েছেন। এখন সরকারের কাছে আরেকটি দাবি রেখেছেন, এ অর্থে যেন কর বসানো না হয়। পুরো অর্থই তিনি একাধিক এনজিওর কাছে দান করে দেবেন। দেশটির শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও ক্রিকেটের উন্নতিতেও কাজ করে যাওয়ার প্রতিজ্ঞা করেছেন ইউনিস। সূত্র: দ্য ডন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ