ইঞ্জিনিয়ারিংয়েও এবার রূপান্তরকামীরা

আপডেট: এপ্রিল ১, ২০১৭, ১২:০৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



কো-এড কলেজ বলতে শুধু ছেলে এবং মেয়ে বোঝায় না। রূপান্তরকামীদেরও সেখানে পড়াশোনা করার সমান অধিকার আছে। ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে নয়া নির্দেশিকা এআইসিটিই–র। সেখানে ভর্তি  সেখানে ভর্তি হওয়ার সমান অধিকার আছে। নয়া নির্দেশিকা সর্বভারতীয় কারিগরি শিক্ষা কাউন্সিল এআইসিটিই–র। সংস্থার প্রধান অনিল সাহাস্ত্রাবুদ্ধের মতে, ‘রূপান্তরকামীদেরও শিক্ষার সমান অধিকার আছে। তাই কোনওরকম বৈষম্যমূলক আচরণ বরদাস্ত করা হবে না।’ বর্তমানে দেশে এআইসিটিই অনুমোদিত ৩০০০-এরও বেশি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ রয়েছে। প্রত্যেক কলেজ এই নয়া নির্দেশিকা মেনে চলতে বাধ্য বলে জানিয়েছেন সাহাস্ত্রাবুদ্ধে। কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের সঙ্গে শলা–পরামর্শ করেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। এআইসিইটই অনুমোদিত সমস্ত কলেজেই ওই নির্দেশিকা পৌঁছেছে। তাতে বলা হয়েছে, কলেজে ভর্তি হওয়া ছেলে, মেয়ে ও রূপান্তরকামী পড়ুয়াদের আলাদা রেকর্ড তৈরি করতে হবে। কোনও রকম অন্যায় চোখে পড়লে কড়া কাউকে রেয়াত করা হবে না। শিক্ষা ও কর্মক্ষেত্রে রূপান্তরকামীদেরও সমান সুযোগ সুবিধা দিতে হবে বলে ২০১৪ সালে রায় দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। যারপর বেশকিছু পদক্ষেপ নেয় ইউজিসি। ভর্তির আবেদনপত্রে রূপান্তরকামীদের জন্য আলাদা বিভাগ রাখার নির্দেশ দেয়া হয় প্রত্যেক বিশ্ববিদ্যালয়কে। বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে তাঁদের নিরাপত্তার পর্যাপ্ত ব্যবস্থা রাখতেও বলা হয়।- আজকাল