ইতালিতে বাংলাদেশির কান্ড নিয়ে তোলপাড়!

আপডেট: জানুয়ারি ২৮, ২০২১, ১০:১৯ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


ইতালিতে দীর্ঘদিন ধরেই বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশির বসবাস। দেশটির আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বাংলাদেশিদের অবদান অস্বীকার করার উপায় নেই। তাদের হাত ধরেই প্রতিবছর বাংলাদেশে আসছে মোটা অংকের রেমিট্যান্সও। তবে ইউরোপের দেশটিতে দুয়েকজনের আচরণে মাঝেমধ্যে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়তে হয় বাকি বাংলাদেশিদের।
সম্প্রতি পরিবেশ নোংরা করার অভিযোগে ইতালির উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় ট্রেভিসো শহরে জরিমানা করা হয়েছে এক বাংলাদেশিকে। এ নিয়ে আবার ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন শহরটির মেয়র নিজেই। এরপর বিষয়টি নিয়ে বেশ বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েন বাকি বাংলাদেশিরা।
গত বুধবার ট্রেভিসোর মেয়র মারিও কোৎঁ তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজ থেকে দেওয়া স্ট্যাটাসে জানান, কিছুদিন আগে টেনি স্টেডিয়ামের কাছে সরকারি রাস্তায় এক ব্যক্তি স্যাটেলাইট ডিশ ফেলে যান।
এ নিয়ে খুব বেশি তথ্য না থাকলেও স্যাটেলাইট ও আশপাশের সিসি ক্যামেরার ছবি দেখে স্থানীয় পুলিশ অপরাধীকে শনাক্ত করে। তার নামপ্রকাশ করা না হলেও মেয়র জানিয়েছেন, ৪৫ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি বাংলাদেশের নাগরিক।
ট্রেভিসোর মেয়রের দেয়া তথ্যমতে, ওই ব্যক্তি প্রথমে দোষ স্বীকার করতে চাননি। পরে তাকে ৪০০ ইউরো জরিমানার পাশাপাশি ফেলে যাওয়া জিনিসটি আবারও বাসায় নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
মারিও কোতেঁর ওই স্ট্যাটাসে অনেকেই বাংলাদেশিদের নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেছেন। কারও কারও মতে, অভিযুক্ত ব্যক্তিকে ৪০০ ইউরো জরিমানা অনেক কম হয়ে গেছে, এর পরিমাণ আরও বেশি হওয়া দরকার ছিল।
কয়েকমাস আগেই ইতালিতে ব্যাপক হারে করোনাভাইরাস সংক্রমণের জন্য বাংলাদেশিদের দিকে সন্দেহের আঙুল তুলেছিলেন স্থানীয়রা। এ নিয়ে ইতালির পাশাপাশি বাংলাদেশের গণমাধ্যমগুলোতেও ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা হয়।
তথ্যসূত্র: জাগোনিউজ