ইন্টার্ন চিকিৎসককে শাস্তি দেয়ায় রামেক হাসপাতালে কর্মবিরতি || ভোগান্তিতে চিকিৎসা নিতে আসা রোগিরা

আপডেট: মার্চ ৫, ২০১৭, ১:১৩ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক



বগুড়ায় চার ইন্টার্ন চিকিৎসককে শাস্তি দেয়ার প্রতিবাদে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসকরা অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতিতে নেমেছেন। গতকাল শনিবার সকাল ৮টা থেকে তারা কর্মবিরতিসহ হাসপাতালের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন।
বগুড়ার ঘটনার প্রতিবাদে গতকাল সকালে রামেকের সামনে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা মানববন্ধন করেছেন। এরপরে দুপুর ১২টা থেকে আল্টিমেটাম দিয়ে ৭২ ঘণ্টার কর্মবিরতিতে গেছেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। এর মধ্যে যদি দাবি না মেনে নেয়া না হয়, তাহলে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তারা। রামেক হাসপাতাল ইন্টার্ন চিকিৎসকদের মুখপাত্র রায়হান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, বগুড়া শহিদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের চার ইন্টার্ন চিকিৎসকের শাস্তি প্রত্যাহারসহ তাদের নিজেদের কর্মস্থলে বহাল রাখার দাবিতে তারা এই কর্মসূচি পালন করছেন। সারা দেশের যতো সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল কলেজ আছে সবগুলোতেই এ ধর্মঘট ডাকা হয়েছে।
এদিকে ইনআর্ন চিকিৎসকদের ধর্মঘটের কারণে ভোগান্তিতে পড়েন চিকিৎসা নিতে আসা রোগিরা। নগরীর উপকণ্ঠ নওহাটা এলাকার বাসিন্দা আবদুল মতিন জানান, তিনি তার সত্তর বছর বয়সি বাবাকে নিয়ে এসেছেন। সিড়ি থেকে পড়ে তিনি আহত হয়েছেন।  পা ভেঙে গেছে। ভর্তি করা হয়েছে ৩১ নম্বর ওয়ার্ডে। কিন্তু ইন্টার্নি চিকিৎসক না থাকার কারণে তিনি সমস্যার মধ্যে পড়েছেন। গতকাল দুপুর দুইটার পর থেকে রামেক হাসপাতালে ধর্মঘটের কারণে এ পরিস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। হাসপাতালের ওয়ার্ডগুলোতে ইটার্নি চিকিৎসকরা না থাকার কারণে রোগি এবং তাদের অভিবভাবকরা ভোগান্তির মধ্যে পড়েন।
উল্লেখ্য, বগুড়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা এক রোগির স্বজনদের মারধর করায় চারজনের ইন্টার্নশিপ ছয় মাসের জন্য স্থগিত করে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া ছয় মাস পরে তাদের চারটি ভিন্ন হসপাতালে ইন্টার্নশিপ স্থানান্তর করে শাস্তি দেয়া হয়।