ইলিয়াস আলীর স্ত্রীকে বিমানবন্দরে আটকে দেয়ার অভিযোগ

আপডেট: জুলাই ১০, ২০১৭, ১২:২৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


বিমানবন্দর ইমিগ্রেশনে বাধার কারণে বড় ছেলের স্নাতক সমাপনীর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যুক্তরাজ্যে যেতে পারেননি বলে অভিযোগ করেছেন নিখোঁজ বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনা।
বিএনপি চেয়ারপাসনের উপদেষ্টা লুনা বলেন, রোববার সকালে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটে দুই সন্তানকে নিয়ে তার লন্ডনে যাওয়ার কথা ছিল।
“কিন্তু শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশনে দেড় ঘণ্টা আমাকে বসিয়ে রেখে বলা হয়, ‘আপনি যেতে পারবেন না, আপনার ছেলে-মেয়েরা যেতে পারবে’।”
এই পরিস্থিতিতে মেয়ে সাইয়ারা নাওয়াল ও ছেলে লাবিব সারারকে নিয়ে বাসায় ফিরে যাওয়ার কথা জানান লুনা।
তিনি জানান, তার বড় ছেলে আবরার ইলিয়াস এবার ব্রিস্টলের ইউনিভার্সিটি অব ওয়েস্ট অব ইংল্যান্ড থেকে স্নাতক শেষ করছে। অভিভাবক হিসেবে আগামী সপ্তাহে ওই অনুষ্ঠানে যোগ দিতেই যুক্তরাজ্যে যাচ্ছিলেন তিনি।
তাকে ইমিগ্রেশনে আটকে দেয়ার বিষয়ে বিমান কর্তৃপক্ষের কারও বক্তব্য জানা যায়নি।
সিলেটের সাবেক সংসদ সদস্য ইলিয়াস আলী ২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল থেকে নিখোঁজ।
বিএনপির অভিযোগ, সরকার তাকে ‘গুম’ করেছে। তবে বরাবরই এ অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে সরকার।
ইলিয়াস বিএনপির গত কমিটির সিলেট বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। সিলেট জেলা কমিটির সভাপতিও ছিলেন তিনি।
তথ্যসত্র: বিডিনিউজ