ইসলামী ব্যাংকে বাংলার ব্যবহার বাড়াতে হবে: ড. মীজান

আপডেট: জানুয়ারি ১৫, ২০১৭, ১২:১১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ইসলামী ব্যাংকের কার্যক্রমে বাংলা ব্যবহারের ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান। তিনি বলেছেন, ইসলামী ব্যাংকের কার্যক্রমে বাংলা ব্যবহার হচ্ছে না। সঞ্চয়ী হিসাব, প্রাথমিক হিসাব, সুদ ইত্যাদি বোঝাতে আরবি শব্দ ব্যবহার করা হয়। আরবির বদলে বাংলা ব্যবহার করতে হবে।

শনিবার গুলশানের লেক শোর হোটেলে আয়োজিত জঙ্গিবাদ ও ব্যাংকিং খাতের সংস্কার শীর্ষক এক গোলটেবিল বৈঠকে মীজানুর রহমান এসব কথা বলেন। বৈঠকটির আয়োজন করে রিজিওনাল অ্যান্টি টেররিস্ট রিসার্চ ইনস্টিটিউট (রাত্রি)।

জবি উপাচার্য বলেন, ইসলামী ব্যংক মানুষকে সুদের বদলে মুনাফা শব্দের সঙ্গে পরিচয় করিয়েছে। আরবি শব্দের ব্যবহার করে দেশের মানুষের ধর্মীয় অনুভূতিকে পুঁজি করে ব্যবসা চালাচ্ছে। ইসলামী ব্যংকের মুনাফা বেশি হওয়ার কারণ হিসেবে কস্ট অব ক্যাপিটাল কমকে চিহ্নিত করেন তিনি।

ড. মীজান বলেন, অনেকেই সুদ নেবেন না বলে সেখানে অর্থ রাখছেন। সেখান থেকে ক্যাপিটাল বাড়ে। তিনি মনে করেন, শুধু ব্যাংকিং খাতের সংস্কার করেই জঙ্গিবাদের সংস্কার হবে না। তবে জামায়াতকে হয়তো চাপে ফেলা যাবে। সবদিকে কাজ করতে হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক এ কে আজাদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে বৈঠকে অংশ নেন ঢাবির সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. জিনাত হুদা, আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. হাফিজুর রহমান কার্জন, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাহারিয়ার কবির, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজাল, অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, সাংবাদিক প্রণব সাহা প্রমুখ।

-প্রতিদিনের সংবাদ