ইসি গঠনে ‘এখনই’ আইন করতে রাজি আ. লীগ

আপডেট: জানুয়ারি ১২, ২০১৭, ১২:০৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



সংবিধানের বিধান অনুযায়ী ‘এখনই’ নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন প্রণয়ন করতে রাজি বলে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সংলাপে জানিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।
দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের ১৯ সদস্যের প্রতিনিধি দল বুধবার বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে এই আলোচনায় অংশ নেয়।
বঙ্গভবনের দরবার হলে দেড় ঘণ্টার এই সংলাপের পর রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন সাংবাদিকদের সামনে আলোচনার বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।
আওয়ামী লীগের প্রস্তাবগুলো রাষ্ট্রপতির কাছে তুলে ধরেন দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা। প্রস্তাবে বলা হয়, প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য নির্বাচন কমিশনার নিয়োগের লক্ষ্যে সম্ভব হলে এখনই একটি উপযুক্ত আইন প্রণয়ন অথবা অধ্যাদেশ জারি করা যেতে পারে।
‘সময় স্বল্পতার কারণে আগামী নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনের ক্ষেত্রে তা সম্ভব না হলে পরবর্তী নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনের সময় যাতে এর বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের নির্দেশনার আলোকে এখন থেকেই সে উদ্যোগ গ্রহণ করা যায়।’
সংবিধানের ১১৮ (১) অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, নির্বাচন কমিশন হবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অনধিক চার জন নির্বাচন কমিশনারকে নিয়ে। এ বিষয়ে প্রণীত আইনের বিধান অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি তাদের নিয়োগ দেবেন।
কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ফেব্রুয়ারিতে। কিন্তু ইসি গঠনের আইন এতোদিনেও না হওয়ায় গতবারের মত এবারও রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে নতুন কমিশন গঠনের এই উদ্েযাগ নিয়েছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। এর আগে সংলাপে অংশ নেওয়া দলগুলোর মধ্েয সংসদের প্রধান বিরোধী দল জাতীয়পার্টিসহ কয়েকটি দল চলতি সংসদেই ইসি গঠনের বিল তোলার প্রস্তাব করেছে। অন্যদিকে বিএনপি ও কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ বর্তমান সংসদকে ‘জনপ্রতিনিধিত্বহীন’ আখ্যায়িত করে ওই প্রস্তাবের বিরোধিতা করেছে।
প্রধানমন্ত্রীকে উদ্ধৃত করে প্রেস সচিব বলেন, ভবিষ্যতে নির্বাচন নিয়ে কোনো বিতর্ক হোক এটা সরকার বা আওয়ামী লীগ চায় না।
“তিনি বলেন, ‘সংবিধান অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি যা উপযুক্ত মনে করবেন, সে প্রক্রিয়ায় তিনি প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও নির্বাচন কমিশনারদের নিয়োগ দেবেন। রাষ্ট্রপতির উদ্যোগের প্রতি আওয়ামী লীগের সমর্থন থাকবে’।”- বিডিনিউজ