ইয়াঙ্গুনে বিক্ষোভে গাড়ি তুলে দিলো জান্তা, নিহত ৫

আপডেট: ডিসেম্বর ৫, ২০২১, ৭:১৭ অপরাহ্ণ

মিয়ানমারের জান্তা সরকারবিরোধী আন্দোলনে বাধা দিচ্ছে নিরাপত্তা বাহিনী। (ফাইল ছবি)

সোনার দেশ ডেস্ক:


মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুনে জান্তাবিরোধী বিক্ষোভ চলাকালে গাড়ি তুলে দিয়ে পাঁচজনকে হত্যা করেছে নিরাপত্তা বাহিনী। ঘটনাস্থল থেকে ১৫ জন আটক করা হয়েছে। এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

খবরে বলা হয়েছে, রবিবার সকালে ইয়াঙ্গুনের রাজপথে বিক্ষোভে নামেন জান্তা বিরোধীরা। কিছুক্ষণের মধ্যে নিরাপত্তা বাহিনীর গাড়ি আন্দোলনকারীদের ওপর তুলে দেওয়া হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবি এবং ভিডিওতে, কয়েকজন বিক্ষোভকারীর মরদেহ সড়কে পড়ে থাকতে দেখা গেছে।

সকালের ঘটনার প্রতিবাদে বিকেলে ইয়াঙ্গুনের অন্য জায়গায় ফের বিক্ষোভে নামেন আন্দোলনকারীরা। মিয়ানমারের কয়েকটি গোষ্ঠীকে নিয়ে গঠিত ছায়া সরকার এ ঘটনাকে দুঃখজনক বলছে।

এক বিবৃতিতে ছায়া সরকার অভিযোগ করে, শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে সন্ত্রাসী সেনাবাহিনী নিরস্ত্র বেসামরিক নাগারিকদের ওপর হামলা চালিয়েছে। এ ঘটনায় নিন্দা জানাচ্ছি।
ঘটনাস্থলে থাকা দুই জন প্রত্যক্ষদর্শীর ভাষ্য, ইয়াঙ্গুনে সকালে একটি ‘ফ্ল্যাশ মব’ বিক্ষোভ শুরু হয়। বিক্ষোভ শুরুর কয়েক মিনিটের মাথায় তার ওপর গাড়ি তুলে দেয় নিরাপত্তা বাহিনী। এতে হতাহতের ঘটনা ঘটে।

গত ১ ফেব্রুয়ারি সু চি সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করে মিয়ানমার সামরিক বাহিনী। এরপর থেকেই জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন চালিয়ে আসছে সাধারণ মানুষ। এ পর্যন্ত নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে প্রাণ হারিয়েছেন এক হাজার তিনশ’র মতো মানুষ।
তথ্যসূত্র: বাংলাট্রিবিউন