ঈদে বেড়েছে ফ্রিজ বিক্রি

আপডেট: আগস্ট ৩০, ২০১৭, ১:১১ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


নগরীর একটি শোরুমে ফ্রিজ পছন্দ করছেন ক্রেতারা-সোনার দেশ

কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে জমে উঠেছে ফ্রিজ কেনাবেচা। নগরীতে ইলেকট্রনিক ব্র্যান্ডের শোরুমগুলোতে ফ্রিজের বিক্রির ধুম পড়েছে। আর কোরবানির মাংস সংরক্ষণের জন্যই ফ্রিজগুলো বিক্রি হচ্ছে এমনটিই বলছেন বিক্রেতারা। আর ঈদকে কেন্দ্র করে এই প্রতিষ্ঠানগুলো ফ্রিজের জন্য বিভিন্ন অফারও দিয়েছে। তেমনি কিছু ইলেকট্রনিক কোম্পানির মূল্যছাড় নিয়ে এই বিশেষ আয়োজন তাদের।
নগরীর ফ্রিজের দোকানগুলোতে ওয়ালটন, ট্রান্সটেক, এলজি বাটারফ্লাই, সিঙ্গার, স্যামসাং, প্যানাসনিক, মাই ওয়ান, যমুনা ফ্রিজ ও কনকা। এছাড়ও অনেক ব্যান্ডের ফ্রিজ ও ডিপ ফ্রিজ বিক্রি হচ্ছে।
সরেজমিনে নগরীর রাজশাহীর নিউ মার্কেট, রেলগেট, সাহেববাজার, কাটাখালী বাজার এবং আলুপট্টি এলাকায় গিয়ে বিভিন্ন ফ্রিজের শোরুমগুলোতে ক্রেতাদের বেশ উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়। শোরুমগুলোর ভেতরে এবং বাইরে রাখা হয়েছে অসংখ্য ফ্রিজ। বড় শোরুম থেকে শুরু করে ছোট ডিলাররাও যেন প্রস্তুতি নিয়ে আছেন ক্রেতাদের চাহিদার পর্যাপ্ত যোগান নিয়ে। ক্রেতার সাধ্যমতো বিভিন্ন মূল্যের ও আকর্ষনীয় ফ্রিজ সাজিয়ে রাখা হয়েছে। এসব শোরুমগুলোর ভেতরের অবস্থায় বলে দেয় ঈদ বাজারের কেনাকাটায় ফ্রিজের চাহিদা।
রাজশাহীর ফ্রিজের বাজারগুলোতে বিভিন্ন মূল্যহ্রাসে ফ্রিজ কেনাবেচা হচ্ছে। সর্বনি¤œ ১২ হাজার থেকে শুরু করে দেড় লাখ টাকা পর্যন্ত বিভিন্ন মূল্যে ফ্রিজ কেনাবেচা হচ্ছে। তবে ক্রেতাদের চাহিদা ও সাধ্যমতো ফ্রিজ পৌঁছে দিতে সব কোম্পানিগুলো ঈদ উপলক্ষে বিশেষ ছাড় ও সুবিধার ব্যবস্থা করেছে।
রাজশাহী মহানগরীর উপকণ্ঠ কাটাখালী বাজার এলাকার শুভ ইলেকট্রনিক্সের ওয়ালটন শোরুমের সত্তাধিকারী এনামুল হক বলেন, ওয়ালটন একটি দেশি ব্যান্ড। তাদের এখানে মোটামটি ছোট-বড় সব ধরনের ফ্রিজ পাওয়া যাচ্ছে। এছাড়া ওয়ালটনের ফ্রিজগুলো ক্রেতাদের নাগালের মধ্যেই রয়েছে। শোরুমের কর্মচারী মুরাদ হোসেন বলেন, ওয়ালটনের ফ্রিজগুলো দামের নাগালের মধ্যেই রয়েছে। দেশের আর অন্য কোন ফ্রিজের চেয়ে অনেক ভালো। গত বছরের চেয়ে এবছর বেশ ভালো ফ্রিজ বিক্রি হচ্ছে। আশা করা হচ্ছে আরো কয়েক দিনে একটু বাড়তে পাড়ে।
ফ্রিজ কিনতে আসা নগরীর মাসকাটাদিঘি এলাকার জাহিদ হাসান বলেন, গরমে পরিবারের নিত্য প্রয়োজনীয় বন্তুর মধ্যে ফ্রিজ অন্যতম। ফ্রিজ থাকলে খাবার দীর্ঘসময়ের জন্য টাটকা রাখা যায়। কুরবানি ঈদ উপলক্ষে বিভিন্ন ছাড় দেয় কোম্পানিগুলো। এই সুযোগে ফ্রিজ কিনতে আসা।
নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্ট এলাকার সিঙ্গার শো রুমের ম্যানেজার কাজী সিরাজুল ইসলাম বলেন, ঈদ উপলক্ষে কেনাকাটা বেশ জমে উঠেছে। রাজশাহীতে আমাদের শোরুমেই বলা যায় ভালো বেচাকেনা হচ্ছে। আগামিতেও আরও ভালো হবে। ঈদ উপলক্ষে সিঙ্গার বিনামূল্যে ফ্রিজ অফার দিয়েছে। মোবাইলে ম্যাসেজ দিয়ে লটারির মাধ্যমে গ্রাহকরা ফ্রিজ ফ্রি পাচ্ছেন।
আরেক ক্রেতা সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, বাসায় ফ্রিজ দরকার ছিল। দীর্ঘদিন থেকে কেনার ইচ্ছা ছিল। ভাবলাম ঈদের মধ্যে কেনাটা ভালো হবে। সে অনুযায়ী কিনতে আসা।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ