ঈশ্বরদীতে অভ্যন্তরীন কোন্দলে যুবদল

আপডেট: জানুয়ারি ১৫, ২০২২, ৯:৫১ অপরাহ্ণ

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি:


পাবনার ঈশ্বরদীতে ঈশ্বরদী উপজেলা যুবদলের আহবায়ক সুলতান আলী বিশ্বাস টনিকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করার অভিযোগ উঠেছে যুবদলেরই অপর পক্ষের নেতা পৌর যুবদলের আহবায়ক জাকির হোসেন জুয়েল, যুবদল নেতা সোনা মনি ও তাদের সমর্থকদের বিরুদ্ধে। এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদে বিগত ঈশ্বরদী পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী সাবেক ছাত্রনেতা রফিকুল ইসলাম নয়নের উদ্যোগে প্রতিবাদ মিছির বের করা হলে সে মিছিলেও প্রতিপক্ষ হামলা করে নয়নকে মারধর করে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় যুবদলের অভ্যন্তরীন কোন্দল নিয়ে সংঘটিত মারধর ও হামলার প্রতিবাদে শুক্রবার রাতে ও গতকাল শনিবার বিকেলে উপজেলা ও পৌর যুবদলের পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার রাতে শহরের হাসপাতাল রোডের জিগাতলায় নিজ বাসভবনে প্রথমে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন সাবেক ছাত্রনেতা রফিকুল ইসলাম নয়ন। তিনি লিখিত বক্তব্য বলেন, বৃহস্পতিবার ঈশ্বরদী পৌর এলাকার উমিরপুরে উপজেলা যুবদলের আহবায়ক সুলতান আলী বিশ্বাস টনির নির্মানাধীন বাড়িতে পৌর যুবদলের আহবায়ক জাকির হোসেন জুয়েল ও যুবদল নেতা সোনা মনি’র নেতৃত্বে ২০/২৫ জনের একটি সন্ত্রাসী বাহিনী হামলা চালিয়ে টনি বিশ্বাসকে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধর করে মারাত্মক আহত অবস্থায় জয়নগর শিমুলতলা খায়রুল ফিলিং স্টেশনের সামনে ফেলে রেখে যায়।

 

তাকে উদ্ধার করে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লে¬ক্সে ভর্তি করার পর দলীয় শত শত দলীয় নেতাকর্মীরা টনি বিশ্বাসের ওপর হামলার প্রতিবাদে তাৎক্ষনিক বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। মিছিল শেষে রেলগেট ট্রাফিক মোড়ে পথসভা শেষ হতে না হতেই জাকির হোসেন জুয়েলের নেতৃত্বে সোনামনি, রিপনসহ একদল সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে নয়নকে মারধর করে। রফিকুল ইসলাম নয়ন বলেন, ঈশ্বরদী উপজেলা যুবদলের সভাপতি সুলতান আলী বিশ্বাস টনি আগামী ১৫ জানুয়ারি উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন যুবদলের কমিটি গঠনের প্রস্তুতি নিয়েছিলেন। এ কমিটি ঘোষণাকে বাধাগ্রস্ত করতেই মূলতঃ তার উপর হামলা চালানো হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ঈশ্বরদী পৌর বিএনপি নেতা দুলাল মন্ডল, আবু বক্কর সিদ্দিক, আওলাদ হোসেন কিরণ, পৌর যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক আতিকুর রহমান তারা, পৌর যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক গোলাম মোস্তফা, ছাত্রদল নেতা খালিদ বিন পার্থিব, জিয়াউর রহমান জিয়া, সাজ্জাদ হোসেন, সম্রাট হোসেন প্রমূখ।

এদিকে ওই সংবাদ সম্মেলনের প্রতিবাদে গতকাল শনিবার বিকেলে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করেছে উপজেলা ও পৌর যুবদলের অপরাংশ। উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক এনামুল হোসেন আতিয়ার ও পৌর যুবদলের যুগ্ম-আহবায়ক মোঃ রেজাউল হক মুকুল এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। পাল্টা এই সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা বিএনপির একাংশের আহবায়ক আহসান হাবিব, যুগ্ম আহবায়ক খায়রুল ইসলাম, পৌর বিএনপির একাংশের যুগ্ম আহবায়ক এসএম ফজলুর রহমান, সদস্য সচিব বিষ্টু সরকার, পৌর যুবদলের আহবায়ক জাকির হোসেন জুয়েল, যুগ্ম আহবায়ক শামিম আক্তার রতন, আক্তারুজ্জামান রাজু, মাহমুদ হাসান সোনামনি, মহিদুল ইসলাম, শরিফুল ইসলাম, মেহেদী হাসানসহ বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীরা।

এ সংবাদ সম্মেলনে যুবদর নেতা সুলতান আলী বিশ্বাস টনির ওপর হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে যুবদলের এই পক্ষের নেতারা বলেন, রফিকুল ইসলাম নয়ন ব্যাক্তিগত ভাবে সংবাদ সম্মেলনে যে বক্তব্য দিয়েছেন তা উদ্দ্যেশ্যমুলক। মুলত ঈশ্বরদী-আটঘরিয়ার জনপ্রিয় বিএনপি নেতা জাকারিয়া পিন্টুর জন সম্পৃক্ততা নেতাকর্মীদের অকুন্ঠ সমর্থন, ভালোবাসা দেখে নেতাকর্মী শুন্য জনবিচ্ছিন্ন কুচক্রী মহল ঈর্ষানীত হয়ে নোংরা রাজনৈতিক খেলায় মেতে উঠেছেন। দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করায় আমরা তীব্রভাবে প্রতিবাদ জানিয়ে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে লিখিতভাবে এবং পত্রিকার মাধ্যমে ক্ষমা না চাইলে সকল দ্বায়-দ্বায়িত্ব রফিকুল ইসলাম নয়নকে বহন করতে হবে বলে লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়।