ঈশ্বরদীতে এমপির এপিএস এর বিরুদ্ধে দোকান ভাঙচুর ও লুটের অভিযোগ থানায়

আপডেট: আগস্ট ৬, ২০২২, ৯:৪২ অপরাহ্ণ

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি:


পাবনার ঈশ্বরদীতে পাবনা-৪ আসনের (ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া) এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুজ্জামান বিশ্বাসের ব্যাক্তিগত সহকারি (এপিএস) রাজন মালিথার বিরুদ্ধে একটি দোকান ভাঙচুর ও মালামাল লুট করার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে থানায়। রাজন মালিথা এমপি নুরুজ্জামান বিশ্বাসের আপন শ্যালক। তিনি শহরের স্কুলপাড়া এলাকার বাসিন্দা।

শুক্রবার রাতে ঈশ্বরদী থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন শহরের স্টেশন রোডের ফকিরের বটতলা এলাকার কারুপল্লী পিঠা ঘর নামের একটি দোকানের মালিক মোছা. শিরিন আক্তার। লিখিত অভিযোগে দাবি করা হয়েছে, রেলওয়ের জায়গা লীজ নিয়ে ২৬ বছর ধরে পিঠা ঘরের ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন তিনি। শুক্রবার দোকান বন্ধ অবস্থায় তাঁর দোকানে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রাজন মালিথার নির্দেশে ১০/১৫ জন যুবক তালা ভেঙে ফ্রিজ, ওভেন, গ্যাসের চুলা, গ্যাসের সিলিন্ডার, চেয়ার, শোকেচ, ফাষ্টফুডের ক্রোকারিজ মালামাল লুট করে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ দায়ের করেন শিরিন আক্তার।

এ বিষয়ে এমপির এপিএস রাজন মালিথা বলেন, আমার শ্বাশুড়ি ফেরদৌসি খাতুনের জমির সামনে রেলওয়ের ওই জায়গা শিরিন আক্তার দির্ঘদিন ধরে দখল করে রেখেছেন। জায়গাটি দখলমুক্ত করা হয়েছে। তাছাড়া আইনত: রেলওয়ের ওই জায়গা আমার শ্বাশুড়ির। মালামাল লুট করার কথা অস্বীকার করেন এপিএস রাজন।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অরবিন্দ সরকার এ বিষয়ে বলেন, পারিবারিক দ্বন্দ্বে সৃষ্ট এ ঘটনাটি দুই পরিবারের মধ্যে আপোষ মিমাংসা করে সমঝোতার মাধ্যমে নিরসন করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। শিরিন আক্তারের লিখিত অভিযোগ সম্পর্কে ওসি বলেন, অভিযোগটি এখনো নথিভূক্ত করা হয়নি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ