ঈশ্বরদীতে জেঁকে বসেছে শীত

আপডেট: ডিসেম্বর ৯, ২০১৬, ১১:৪৯ অপরাহ্ণ

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি


উত্তরের ঠান্ডা বাতাস ও সাগরে নিম্নচাপের প্রভাবে পাবনার ঈশ্বরদীতে জেঁকে বসেছে শীত। পর্যায়ক্রমে তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছে। এ অবস্থায় শীতের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় শীতে কষ্ট পাচ্ছেন হতদরিদ্র মানুষজন।
ঈশ্বরদী আবহাওয়া অফিস সুত্রে জানা গেছে, গতকাল শুক্রবার ঈশ্বরদীতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ১৪ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়া অফিস আরো জানায়, গত বুধবার থেকে শীতের ঈশ্বরদীতে শীতের প্রকোপ বাড়ছে। উত্তর থেকে দক্ষিণে সর্বোচ্চ ৫ কিলোমিটার গতিতে ঠান্ডা বাতাস প্রবাহিত হচ্ছে। ঠান্ডা বাতাসের কারণে শীত বাড়ছে। পর্যবেক্ষক আব্দুল খালেক সরকার জানান, উত্তরের ঠান্ডা বাতাস ছাড়াও সাগরে নিম্নচাপের প্রভাবে ঠান্ডার প্রবণতা ক্রমেই বাড়ছে। নিম্নচাপের কারণে আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকছে। উত্তরের হিমেল বাতাসের কারণে আকাশে কুয়াশা রয়েছে। মেঘাচ্ছন্ন আকাশ ও কুয়াশার কারণে সূর্য ঢাকা পড়ছে। রোদ বের হচ্ছে না। ফলে শীত বেশি অনুভূত হচ্ছে।
গতকাল শুক্রবার ও গত বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত ঈশ্বরদীতে সূর্যের মুখ দেখা যায়নি। আকাশ ছিল কুয়াশায় ঢাকা। শহরের রেলস্টেশন, বাসটার্মিনাল ও সাঁড়া ইউনিয়নের আড়ামবাড়িয়া গ্রাম ঘুরে দেখা গেছে, হঠাৎ শীত জেঁকে বসায় হতদরিদ্র মানুষজন প্রয়োজনীয় শীতবস্ত্রের অভাবে কষ্টের মধ্যে পড়েছেন। অনেকে কাজে যাচ্ছেন না। আড়ামবাড়িয়ার স্কুলপাড়া গ্রামের চেতনপাল বলেন, নদীরপাড়ে তাদের বাড়িঘর। ঠান্ডা বাতাস ও শীতের কারণে তাদের কষ্টের মধ্যে কাজ করতে হচ্ছে।