ঈশ্বরদীতে পৃথক দুর্ঘটায় দুইজনের মৃত্যু

আপডেট: জুন ৪, ২০২০, ১০:২৭ অপরাহ্ণ

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি:


ঈশ্বরদীতে ট্রেনে কাটা পড়ে ও বালুবাহী ড্রামট্রাকের ধাক্কায় দুই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হলেন, লালপুর উপজেলার আয়েজ উদ্দিনের ছেলে আবদুর রশিদ (৫৮) ও সাহাপুর ইউনিয়নের মহাদেবপুর গ্রামের আক্কেস সরদারের ছেলে মনিরুল ইসলাম বিপুল (২২)।
ঈশ্বরদী ফায়ার সার্ভিস, হাসপাতাল ও পুলিশ সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার (৪ জুন) বেলা ১১ টার সময় খুলনা থেকে রাজশাহীগামী আন্তঃনগর কপোতাক্ষ এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঈশ্বরদী রেলওয়ে গেট অতিক্রম করে স্টেশনে প্রবেশ করার সময় আবদুর রশিদ আনমনা হয়ে রেললাইন পার হচ্ছিল। এসময় ওই ট্রেনের ধাক্কায় হাত-পা কেটে গুরুতর আহত হন তিনি। খবর পেয়ে ঈশ^রদী ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে ঈশ^রদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।
ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এফ এ আসমা খান বলেন, ট্রেনে কাটা পড়ে তার প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছিল। চিকিৎসকরা অনেক চেষ্টা করেও তাকে বাঁচাতে পারেনি।
ঈশ্বরদী রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) গোপাল কুমার জানান, হাসপাতাল থেকে লাশ উদ্ধার করে পোস্টমর্টেমের জন্যে মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় ঈশ্বরদী রেলওয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করো হয়েছে বলে জানান ওসি।
অন্যদিকে পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার যমুনা ইলেক্ট্রনিক্সের ঈশ্বরদী শোরুমের ম্যানেজার মনিরুল ইসলাম বিপুল সাইকেল যোগে মহাদেবপুর কাঠালতলা মোড় হয়ে নিজের লিচু বাগানে যাচ্ছিলেন। এ সময় বালুবোঝাই একটি ড্রামট্রাকের ধাক্কায় গুরুতর আহত হলে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হচ্ছিল। পথিমধ্যেই তার মৃত্যু হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ