ঈশ্বরদীতে ফেক আইডি নিয়ে ঝগড়ায় স্ত্রীকে গলাটিপে হত্যা, স্বামী গ্রেফতার

আপডেট: June 17, 2020, 10:42 pm

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি:


ফেসবুকে এক নারীর ছবিসহ ফেক আইডি নিয়ে স্বামীর সঙ্গে বাক-বিতণ্ডার জের ধরে গার্মেন্ট কর্মী স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যা করে তার স্বামী। হত্যার মাত্র তিন দিনের মাথায় বুধবার ( ১৭ জুন) তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
নিহত ওই নারী মিতু খাতুন (২৬) ঈশ^রদী ইপিজেডের একটি গার্মেন্টস কারখানার শ্রমিক ছিলেন। মিতু কুমিল্লার দাউদকান্দির মোল্লাকান্দি গ্রামের মৃত মিজানুর রহমানের মেয়ে এবং জানিম হোসেন বাবুর (৩০) স্ত্রী। বাবু ঈশ^রদী উপজেলার মুলাডুলি স্টেশনপাড়ার চাঁদপুর গ্রামের মৃত শহিদুল ইসলাম বাবলুর ছেলে।
ঈশ^রদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি-তদন্ত) অরবিন্দ সরকার জানান, মাদকাসক্ত জানিম হোসেন বাবু নিজে বেকার ছিলেন, স্ত্রীর চাকরির আয়ে তাদের সংসার চলে। গত ১৩ জুন স্ত্রী মিতু ইপিজেড থেকে বাড়ি ফেরার পর তার স্বামী বাবুর মোবাইলে একজন নারীর ছবি দেখে সে কে প্রশ্ন করে। সে এটা ফেসবুকের একটা ‘ফেক আইডি’ বলার পর এনিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বাগবিতণ্ডা ও ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে স্বামী বাবুকে তার মা তুলে গালি দিলে সে ক্ষুব্ধ হয়ে গলা টিপে হত্যা করে স্ত্রী মিতুকে। স্বাভাবিক মৃত্যু বলে চালিয়ে দেয়ার পর এ খবর পুলিশের কানে আসে। পুলিশ গোপনে তার গতিবিধি লক্ষ্য করে সন্দেহ করে বুধবার তাকে তার বাড়ি থেকে আটক করে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে এক পর্যায়ে স্ত্রীকে হত্যার কথা স্বীকার করে জানিম। আদালতে ১৬৪ ধারায় দেয়া জবানবন্দিতে জানিম তার স্ত্রীকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে বলে জানান ওসি তদন্ত অরবিন্দ সরকার।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ