ঈশ্বরদীতে যৌথবাহিনীর সন্ত্রাস, জঙ্গি ও মাদকবিরোধী রোড-শো

আপডেট: আগস্ট ৭, ২০১৭, ১২:৫০ পূর্বাহ্ণ

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি


ঈশ্বরদীতে যৌথবাহিনীর সন্ত্রাস, জঙ্গি ও মাদকবিরোধী রোড-শো কর্মসূচিতে পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যরা-সোনার দেশ

ঈশ্বরদীতে মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবিরোধী রোড-শো করেছে র‌্যাব ও পুলিশ। গতকাল রোববার একটি বিশাল মোটরসাইকেল ও গাড়িবহর নিয়ে শহরে রোড-শো করে ঈশ্বরদী থেকে সন্ত্রাস, জঙ্গি ও মাদক নির্মূলের ঘোষণা দিয়েছে যৌথবাহিনী।
রোড-শো শেষে পথসভায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জহুরুল হক বলেন, খুব বেশি সময় অপেক্ষা করতে হবে না, শিগগিরই সন্ত্রাসী, জঙ্গি ও মাদক ব্যবসায়ী গডফাদারদের গ্রেফতার নিয়ে নতুন চমক দেখতে পাবেন। গতকাল রোববার ঈশ্বরদীতে র‌্যাব ও পুলিশের সমন্বয়ে গঠিত যৌথবাহিনীর মহড়া ও পথ সভায় বক্তব্য দেয়ার সময় ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জহুরুল হক বলেন, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প বাস্তবায়নের সূত্র ধরে ঈশ্বরদীতে এখন প্রচুর সংখ্যক বিদেশি নাগরিক বসবাস করেন। সে কারণে ঈশ্বরদীকে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হচ্ছে। এই এলাকায় কোন সন্ত্রাসী, জঙ্গি কিংবা মাদক ব্যবসায়ী বসবাস করতে পারবে না। এই এলাকার সার্বিক নিরাপত্তা বিধানে র‌্যাব, পুলিশ, গোয়েন্দা পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সব বিভাগের সদস্যরা এখন আগের চেয়ে আরো বেশি তৎপর। এই শহরকে অপরাধমুক্ত শহরে রূপান্তর করার জন্য পুলিশ সবসময় তৎপর রয়েছে, কাজেই এই এলাকায় কোন অপরাধী, সন্ত্রাসী, জঙ্গি কিংবা মাদক বিক্রেতাদের গডফাদাররা থাকলে এলাকা ছেড়ে চলে যান।
স্থানীয় জনসাধারণের উদ্দ্যেশ্যে তিনি বলেন, খুব শিগগিরই এদের গ্রেফতার করার নতুন চমক দেখতে পাবেন। ঈশ্বরদীর রেলওয়ে গেট, বকুলের মোড়, লোকোসেড, ফতেমোহাম্মদপুর, মশুরিয়া পাড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় র‌্যাব ও পুলিশের একটি বিশাল মোটরসাইকেল ও গাড়িবহর নিয়ে রোড-শো করে। এসময় বিভিন্ন রাস্তার মোড়ে মোড়ে পথসভায় বক্তব্য দেন পুলিশ ও র‌্যাবের সদস্যরা। রেলগেট জিরোপয়েন্টে সমাপনী পথসভায় উপস্থিত ছিলেন ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজিম উদ্দীন, শহর ইন্সপেক্টর আবদুল মজিদসহ পুলিশ ও র‌্যাবের বিভিন্ন পর্যায়ের প্রায় শতাধিক সদস্যবৃন্দ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ