ঈশ্বরদীতে রেলের জমি থেকে মাটি কাটায় এক বছরের কারাদণ্ড

আপডেট: জানুয়ারি ২০, ২০২২, ৯:৩৭ অপরাহ্ণ

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি:


পাবনার ঈশ্বরদীতে রেলওয়ের জমি থেকে অবৈধভাবে মাটি কাটাছিলেন মাহাবুবুর রহমান নামের এক ব্যক্তি। এমন সময় ওই রাস্তা দিয়ে রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় ভূসম্পত্তি কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. নুরুজ্জামানসহ রেলের কয়েকজন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা যাচ্ছিলেন। গাড়ি থামিয়ে রেল কর্মচারীরা মাটি কাটতে নিষেধ করায় উল্টো তাদের ‘দেখে নেওয়ার হুমকি’ দেন মাহবুবুর রহমান। এ ঘটনায় রেলওয়ের বিভাগীয় কর্মকর্তা মো. নুরুজ্জামান সেখানেই ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে অবৈধভাবে মাটি কাটার অপরাধ প্রমানিত হওয়ায় তাকে এক বছরের কারাদন্ডে দন্ডিত করেন। রেলওয়ে পুলিশের একটি দল তাৎক্ষনিক ওই ব্যাক্তিকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে যান। বুধবার বিকেলে ঈশ্বরদী পৌর এলাকার পাতিবিল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মাহবুবুর রহমান ঈশ^রদীর পাতিবিল এলাকায় বসবাস করেন, তার গ্রামের বাড়ি গোপালগঞ্জে।

এ ঘটনা সম্পর্কে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. নুরুজ্জামান বলেন, পাকশী থেকে ঈশ্বরদী যাওয়ার পথে রেলের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নজরে পড়ে রেলের জায়গা থেকে অবৈধভাবে মাটি কাটার দৃশ্য। এসময় তাকে সরকারি জায়গা থেকে আইন অমান্য করে কেন মাটি কাটছেন এমন প্রশ্ন করলে তিনি পুলিশের দু’একজন কর্মকর্তা ও রাজনৈতিক বিভিন্ন জনের পরিচয় দিয়ে বলেন, ‘আপনি নিষেধ করার কে, আপনাকে দেখে নেব।’ অবৈধভাবে মাটি কাটার অপরাধ করা ছাড়াও উল্টো রেলের কর্মচারীদের হুমকি দেন মাহবুবুর রহমান। এখবর জানতে পেরে তাৎক্ষনিকভাবে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে ওই ব্যাক্তিকে এক বছর কারাদন্ড দেওয়া হয়।