ঈশ্বরদীতে শত্রুতা করে গাছ কেটে ও মশুর খেত পুড়িয়ে দিয়েছে প্রতিপক্ষ

আপডেট: ডিসেম্বর ২৭, ২০১৬, ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি


ঈশ্বরদীতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শত্রুতাবশত লিচু, মেহগনি, আম, জাম, কড়ইসহ প্রায় দেড় শতাধিক গাছ কেটে ও প্রায় ৮ বিঘা জমির মশুর খেতে বিষ ¯েপ্র করে মশুর পুড়িয়ে দিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন। গত রোববার রাতে ঈশ্বরদীর সাহাপুর ইউনিয়নের বাবুলচরা তিলকপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার লিখিত অভিযোগ পেয়ে গতকাল সোমবার সকালে সাহাপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান রুহুল আমিন, মেম্বার তৌহিদুল ইসলাম তুহিন ও নারী সদস্য ফরিদা খাতুনসহ পরিষদের অন্য মেম্বার ও এলাকাবাসী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এর সত্যাসত্য প্রমাণ পেয়েছেন।
ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক শফি ফকির সাংবাদিকদের নিকট বলেন, এতে তার ক্ষতি হয়েছে প্রায় ৫ লাখ টাকা। তিনি আবেগআপ্লুত কন্ঠে অভিযোগ করে বলেন, ৩ মাস আগে তিলকপুর গ্রামে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের জহুরুল প্রামানিক, মিনারুল ও সাজেদুল প্রামানিকের সঙ্গে তার পরিবারের নবাব আলী ফকির, শফি ফকির ও দৌলত ফকিরের কথা কাটাকাটি হয়। সেই ঝগড়ার জের ধরে রোববার রাতে তারা প্রায় ৭/৮ বিঘা জমিতে রাতের আঁধারে বিষাক্ত বিষ ¯েপ্র করে মশুর পুড়িয়ে ও দেড় শতাধিক চারা গাছ কেটে বিনষ্ট করেছে। এ বিষয়ে ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল হাই তালুকদার বলেন, ঘটনাটি লোকমুখে শুনেছি, লিখিত অভিযোগ পেলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।