ঈশ্বরদীর দিয়াড় বাঘইলে সকালে দরজা খুলতেই কাফনের কাপড় ও চিঠি || এলাকায় আতঙ্ক ও চাঞ্চল্য

আপডেট: June 15, 2020, 10:04 pm

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি:


ঈশ্বরদীর পাকশীতে এক বাড়ির দরজার সামনে কাফনের কাপড়, গোলাপজল, আগরবাতি, নতুন একটি গামছাসহ দাফনে ব্যবহৃত বিভিন্ন জিনিস উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ কাফনের কাপড়সহ সেসব জিনিসপত্র উদ্ধার করে, তবে এ নিয়ে এলাকায় আতঙ্ক ও চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। সোমবার (১৫ জুন) উপজেলার পাকশী ইউনিয়নের দিয়াড় বাঘইল গ্রামে আকমল হোসেন বাবু প্রামাণিকের বাড়ির দরজার সামনে থেকে এসব উদ্ধার করা হয়।
উদ্ধারকৃত ওই কাফনের কাপড়ের ওপর মৃত্যুর হুমকি দিয়ে লেখা চিঠিতে লাল কালিতে ওই বাড়ির মালিক আকমল হোসেন বাবু’র একমাত্র ছেলে টনিক এবং টনিকের চাচাতো ভাই স্মরণকে হত্যা করা হবে বলে উল্লে¬খ করা হয়।
আকমল হোসেন বাবু জানান, সকালে বাড়ির লোকজন ঘুম থেকে উঠে দরজা খুলতেই দরজার সামনে এসব দেখতে পান। ভয়ে তারা সেসব না ধরে স্থানীয় ইউপি সদস্য রেজাউল করিম নান্টু ও আশেপাশের লোকজনকে জানান। পরে খবর পেয়ে পাকশীর রূপপুর পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে সেগুলো উদ্ধার করে। এ খবরে স্থানীয় উৎসুক লোকজন ওই বাড়ির সামনে এসে ভিড় জমায়।
ইউপি সদস্য রেজাউল আলম নান্টু এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। রূপপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বিজাশ কুমার চক্রবর্তী জানান, খবর পেয়ে কাফনের কাপড়, চিঠিসহ অন্যান্য জিনিসপত্র উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাটি তদন্ত করে এর সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে বের করা হবে।
উল্লে¬খ্য, গত ৭ এপ্রিল রাতে বাবুর এবং তার সামনের শফিকুল ইসলাম এর বাড়িতে দুটি বোমা সাদৃশ্য বস্তু কে বা কারা রেখে যায়। এর আগে শফিকুল ইসলাম ও পার্শ্ববর্তী রেজানুর রহমানকে হত্যার হুমকি দিয়ে উড়ো চিঠি দেয়ার ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসী জানান, একের পরে পর এসব ঘটনায় এলাকায় আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ