উত্তরবঙ্গে বঙ্গবন্ধু

আপডেট: আগস্ট ৭, ২০২০, ১২:১১ পূর্বাহ্ণ

আনারুল হক আনা


বঙ্গবন্ধুর রাজশাহী সফর: ১৯৫৪
১৯৫৪ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রাজশাহী সফর সম্পর্কে তৎকালীন পত্রিকায় প্রকাশিত তথ্য এখনও পাওয়া যায়নি। তবে কিছু গ্রন্থের লিপি ও ছবি আমাদের জানতে সাহায্য করে ১৯৫৪ সালে তাঁর আগমন বার্তা। এখানে সেই সমস্ত তথ্যকেই উপস্থাপন করা হলো।
১৯৫৪ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি আজাদ পত্রিকার ৫ম পৃষ্ঠায় ৩য় কলামে ‘জনাব সোহরাওয়ার্দ্দীর সফর সূচী’ শিরোনামে প্রকাশিত তথ্যানুসারে আওয়ামী মুসলিম লীগের আহবায়ক হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী ১৬ দিনব্যাপী ফরিদপুর, রাজশাহী, দিনাজপুর, রংপুর, পাবনা, মোমেনশাহী (ময়মনসিং) সফর করেন। প্রতিবেদনটি লিখনের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি। সংবাদে বলা হয়েছে তিনি আগামীকাল সকালে ঢাকা ত্যাগ করবেন এবং ঢাকা প্রত্যাবর্তন করবেন আগামী ৮ মার্চ। সফরের উদ্দেশ্য ছিল যুক্তফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থীদের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণা। সফর সূচি অনুয়ায়ী আওয়ামী লীগ কর্মী ও প্রার্থীদের সঙ্গে আলোচনা ছাড়াও সোহরাওয়ার্দী ৩০টি জনসভায় বক্তব্য পেশ করবেন। দৈনিক আজাদের পরবর্তী সংখ্যাগুলোয় সোহরাওয়ার্দীর রাজশাহী উপস্থিতি সম্পর্কে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে কিছু গ্রন্থে ১৯৫৪ সালে বঙ্গবন্ধুর আগমনের তথ্য পাওয়া যায়। যেমন- মেসবাহুল হক বাচ্চু ডাক্তার স্মৃতি পরিষদ চাঁপাইনবাবগঞ্জ আলহাজ্জ মুহম্মদ মাহতাব উদ্দিনের সম্পাদনায় ২০১০ সালের ১৬ জানুয়ারি ‘বাচ্চু ডাক্তার স্মারকগ্রন্থ’ প্রকাশ করে। গ্রন্থটির ১২০ থেকে ১২৯ পৃষ্ঠায় ‘চাঁপাইনবাবগঞ্জে মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে কিছু কথা’ শিরোনামে একটি সাক্ষাৎকার প্রকাশিত হয়। মো. মোসফিকুর রহমান সাক্ষাৎকারটি গ্রহণ করেন। সাক্ষাৎকারটির ১২১ পৃষ্ঠায়- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে কিভাবে পরিচয় হলো? প্রশ্নের জবাবে মেসবাহুল হক বাচ্চু ডাক্তার বলেন, ‘৫৪ সালের নির্বাচনী প্রচারণায় বঙ্গবন্ধু রাজশাহী এলেন। আমরা তাঁর সাথে দেখা করলাম। রাতে তিনি আমাদের সাথে বৈঠক করলেন। সেই যে তাঁর সাথে আমার রাজনৈতিক সম্পর্ক গড়ে উঠলো, সেটাই আমার জীবনের রাজনৈতিক টার্নিং পয়েন্ট।’ এছাড়া শেখ মুজিবুর রহমানের ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ গ্রন্থের (৪র্থ মুদ্রণ ফেব্রুয়ারি ২০১৮) ১৫৬ পৃষ্ঠায় হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর সঙ্গে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি ছাপানো হয়। ছবিটির শিরোনামে উল্লেখ আছে ‘রাজশাহী সফরে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর সঙ্গে, ১৯৫৪’। ‘জাতির জনক’ অ্যালবামের ৪১ পৃষ্ঠায়ও ছবিটি পাওয়া যায়। তার শিরোনামে আছে ‘১৯৫৪, রাজশাহী সফরে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর সঙ্গে শেখ মুজিব’। আবার সিরাজ উদ্দীন আহমেদ রচিত ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’ গ্রন্থের ১১২-১১৩ পৃষ্ঠার মাঝখানে কয়েকটি ছবির মধ্যে এ ছবিটিও দেখা যায় ‘পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী সোহরাওয়ার্দীর সাথে শিল্পমন্ত্রী শেখ মুজিবুর রহমান, ১৯৫৬-১৯৫৭’ শিরোনামে। বঙ্গবন্ধু ১৯৫৬ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর হতে ১৯৫৭ সালের ৩০ মে পর্যন্ত কোয়ালিশন সরকারের শিল্প, বাণিজ্য, শ্রম, দুর্নীতি দমন ও ভিলেজ-এইড দপ্তরের মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। ছবিটির সৃষ্টিকাল সিরাজ উদ্দীন আহমেদ উল্লেখ করেন নি। তাই ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ গ্রন্থ ও ‘জাতির জনক’ অ্যালবামের সূত্র ধরেই নির্ধারিত হলো ছবিটি তোলা হয় ১৯৫৪ সালে রাজশাহীতে।
এসব তথ্য থেকে নিশ্চিত হওয়া যায়, বঙ্গবন্ধু ১৯৫৪ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে ৮ মার্চের মধ্যে কোনো একদিন হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর সঙ্গে রাজশাহী এসেছিলেন। উদ্দেশ্যে ছিল ১৯৫৪ সালের নির্বাচনী প্রচারণা। নির্বাচনী প্রচারণায় এসে তিনি কোথায় ছিলেন, কোনো সভা করেছিলেন কি না, বাচ্চু ডাক্তার ছাড়া আর কার কার সঙ্গে আলোচনা করেছিলেন? এসব উত্তরের জন্য বিস্তারিত গবেষণার প্রয়োজন।