উদয়ে

আপডেট: এপ্রিল ১, ২০২২, ১২:৪২ পূর্বাহ্ণ

এস এম তিতুমীর


চাওয়াগুলো যখন অপূর্ণতার স্রোতে
রোদের মত নেমে আসে, তখন মাথা ভর্তি-
অনন্ত সাগর ফুঁসে ওঠে, বেলা-অবেলা।
ভূয়োদর্শী ওই বট, বিছানো পায়ের তলে-
তামাটে স্বপ্ন, সংঘাতের পূর্বজন্ম,
বেদুইন দিনের বসতিতে হাসে ঘাস-ফড়িং।
বেরুবার পথে, হাতে-পায়ে, মুখে, ঠোঁটে,
চিবুকে বিষণœ কিষাণের-ভোর। আঁধারের গা থেকে
ডুবে যায় আঁধারে

এই নাও, উত্তরের কপাল, দক্ষিণের দরাজ জমিন
পাড় ভাঙা উজানের গিরিখাদে, নিনাদে-নিনাদে
যে সুর বাতাস আনে, তাকে রেখে দিয়ো বুকের বামে
এই হলে প্রতিবাদ উত্তাপে-উত্তাপে। ঘর ছেড়ে ছুটে আসে
ঘরে, শীতল জলে অভ্যন্তরে। যা ছিলো জলের জরায়ু ছুঁয়ে
তুমি আর তোমার শরীর। এবার এসো তবে ভেঙে দিই
আনাদি দ্বন্দ্বের শত ভিড়, পশ্চিমের অতলে যা আছে স্থির।

ভয় নেই বন্ধু এইবার দেখে নিয়ো ঠিক হবে ভোর, নিরন্তর
খুলে দেওয়া ওই- অন্তরে অন্তর।