উপজেলার ১০টি চিকিৎসা কেন্দ্র করোনা রোগির সেবায় প্রস্তুত || ঘরে থাকতে বললেন ডিসি

আপডেট: এপ্রিল ১, ২০২০, ১০:১৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


প্রেস ব্রিফিংয়ে বক্তব্য রাখছেন জেলা প্রশাসক হামিদুল হক-সোনার দেশ

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল বাদে উপজেলাগুলোর ১০টি সরকারি চিকিৎসা কেন্দ্রে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এতে ১৬ জন চিকিৎসক ও ১৩ জন নার্স প্রস্তুত আছেন। এছাড়া চিকিৎসাকেন্দ্রগুলোর ৪৬২টি বেডের মধ্যে ১১৫টি বেড করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগিদের চিকিৎসার জন্য পৃথকভাবে প্রস্তুত করা হয়েছে। চিকিৎসাকর্মীদের মাঝে ৩৩৭টি পিপিই বিতরণ করা হয়েছে। সংগ্রহে আছে আরো ৬৬৩টি।
করোনা পরিস্থিতির মধ্যে রাজশাহীতে সরকারের সহযোগিতা, প্রস্তুতি ও বর্তমান পরিস্থিতি তুলে ধরে সংবাদ সম্মেলনে হামিদুল হক এসব তথ্য জানান। বুধবার (১ এপ্রিল) দুপুরে জেলা প্রশসনের সম্মেলন কক্ষে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
তিনি জানান, রাজশাহী জেলায় মোট এক লাখ ৪৫ হাজার দরিদ্র পরিবার রয়েছে। এর মধ্যে ৬০ হাজার ৬০০টি পরিবারের মাঝে ৬০৭ মেট্রিক টন খাদ্য সামগ্রী ও ১৪ লাখ ৫০ হাজার নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়েছে। জেলা প্রশাসনের কাছে ১৮৯ মেট্রিক টন চাল ও ৪ লাখ ৫ হাজার নগদ অর্থ মজুদ আছে।
তিনি আরো জানান, স্থানীয় সরকারের তহবিল থেকেও জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। প্রয়োজনে আগামীতে দরিদ্র পরিবার চিহ্নিত করে চাহিদা সাপেক্ষে সহায়তার পরিমাণ বৃদ্ধি করা হবে।
এসময় জেলা প্রশাসক রাজশাহীবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, পরবর্তি নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত ঘরে থাকুন। যে কোনো পরিস্থিতে রাজশাহী প্রস্তুত আছে। জনগণের সহযোগিতা প্রয়োজন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ