উরুগুয়েতে নার্সিং হোমে আগুন, নিহত ১০

আপডেট: জুলাই ৮, ২০২৪, ১১:৪১ পূর্বাহ্ণ

ফাইল ছবি

সোনার দেশ ডেস্ক :


উরুগুয়েতে বয়স্কদের জন্য পরিচালিত একটি নার্সিং হোমে অগ্নিকাণ্ডে ১০ জন নিহত হয়েছে। স্থানীয় সময় রোববার সকালে সেখানে আগুন লাগে। তবে অগ্নিকাণ্ড থেকে কোনো রকমে প্রাণে বেঁচে গেছেন ওই নার্সিং হোমের কেয়ার টেকার। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। খবর এএফপির।

দক্ষিণ আমেরিকার দেশটির পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত ট্রেইনটা ই ট্রেস নামের একটি শহরে অবস্থিত ৬ কক্ষবিশিষ্ট ওই নার্সিং হোমে অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের মধ্যে ৮ জনই নারী এবং দুজন পুরুষ। স্থানীয় কর্মকর্তারা এক বিবৃতিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

অগ্নিনির্বাপক কর্মীরা যখন ঘটনাস্থলে পৌঁছান তখন তারা নার্সিং হোমের প্রধান প্রবেশদ্বারটি বন্ধ দেখতে পান। ভবনের ভেতরে প্রবেশ করার পর তারা বসার ঘরে আগুন দেখতে পান। সে সময় পুরো ভবন জুড়ে ধোঁয়া ছড়িয়ে পড়েছিল।
এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ওই নার্সিং হোমের ২০ বছর বয়সী একজন কেয়ারটেকার একটি গ্যারেজের ভেতর দিয়ে নিরাপদে বেরিয়ে আসতে সক্ষম হন।
ভবনটিতে আগুন লাগার সঙ্গে সঙ্গেই সেখানে ধোঁয়ার কারণে সাতজন প্রাণ হারান। এছাড়া গুরুতর অবস্থায় আরও তিনজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়।

উরুগুয়ের গণস্বাস্থ্য বিষয়কমন্ত্রী কারিনা রান্ডো বলেন, এই অগ্নিকাণ্ডকে দুর্ঘটনা হিসেবেই দেখা হচ্ছে। তবে এই ঘটনার তদন্ত করা হবে বলেও জানান তিনি।

রান্ডো বলেন, এই ভবনটি খুব ভালো অবস্থায় ছিল। তবে সাম্প্রতিক সময়ে সেখানে ছোটখাটো পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে।
প্রায় এক সপ্তাহ আগেই দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় মেলো শহরে অবস্থিত অপর একটি নার্সিং হোমে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

বয়স্ক এবং মানসিক রোগে আক্রান্ত লোকজনের সেবায় নিয়োজিত ছিল ওই নার্সিং হোম। দুর্ঘটনার সময় ৪০ জনকে সেখান থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়। এর মধ্যে ৭৭ বছর বয়সী এক পুরুষ এবং ৭২ বছর বয়সী এক নারী প্রাণ হারান।
তথ্যসূত্র: জাগোনিউজ

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ