উল্লাপাড়ায় ট্রেন দুর্ঘটনা : জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৪ জন পুলিশ হেফাজতে

আপডেট: নভেম্বর ১৬, ২০১৯, ১:০০ পূর্বাহ্ণ

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি


উল্লাপাড়ায় ট্রেন দুর্ঘটনায় নয় বগি লাইনচ্যুত হয়ে চারটিতে আগুন ধরে যাওয়ার ঘটনায় রেলওয়ের ৪ খালাসি ও এক মিস্ত্রিকে জিজ্ঞাবাসের জন্য থানায় নিয়েছে জিআরপি থানা পুলিশ। গতকাল শুক্রবার ভোরে তাদের থানায় নেয়া হয়। তাদের মধ্যে ৩ জনের নাম জানা গেছে। তারা হলেন- খালাসি আরিফুল ইসলাম এবং মিস্ত্রি আবদুর রাজ্জাক ও মকবুল হোসেন।
এ ঘটনায় দায়িত্বপ্রাপ্ত স্টেশন মাস্টার ও লোকোমাস্টারের (চালক) বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। এদিকে এ দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে আরেকটি পৃথক তদন্ত কমিটি করেছে রেল মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. ফারুক-উজ-জামানের নেতৃত্বে ৫ সদস্যের এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এর আগে দুর্ঘটনার পরপরই পশ্চিমাঞ্চল রেল বিভাগ রাজশাহী, পাকশী ও সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসন থেকে আরো ৩টি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। শুক্রবার সকালে দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শনে পশ্চিমাঞ্চল রেল বিভাগের রাজশাহীর মহাব্যবস্থাপক মিহির কান্তি গুহ ও সহকারী মহাপরিচালক মিয়া জাহানসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উল্লাপাড়ায় এসেছেন। সিরাজগঞ্জ জিআরপি থানার ওসি হারুন মজুমদার ও পশ্চিমাঞ্চল রেল বিভাগ, পাকশীর বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে রেল মন্ত্রণালয়ের আরেকটি পৃথক তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, ঢাকা-থেকে রংপুরগামী রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেন বৃহস্পতিবার দুপুরে উল্লাপাড়া স্টেশনের মধ্যে এ দুর্ঘটনায় পড়ে। ট্রেনটির ইঞ্জিনসহ ৯টি বগি লাইনচ্যুত হয়। এ সময় ইঞ্জিনসহ চারটি বগি আগুনে পুড়ে যায়। আতঙ্কিত যাত্রীরা দ্রুত নামতে গিয়ে ১০ জন আহত হয়। এ ঘটনায় উত্তরাঞ্চলসহ খুলনা ও রাজশাহীর সঙ্গে ঢাকার ট্রেন যোগাযোগ প্রায় ৬ ঘণ্টা বন্ধ থাকায় সিডিউল বিপর্যয় ঘটে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ