একক মানব

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১, ২০১৭, ১:৫০ পূর্বাহ্ণ

শোয়েব শাহরিয়ার


শস্যবৃন্দ ধন্য হলো,
মাটির কোলে ঘুম মিশিয়ে একক মানব
পুণ্য ঢালে বাতাস কাঁদায়,
উথলে-ওঠা নদীর বাঁকে
আঁজলা জলের আর্শিতে গো
মুখটি দেখো, পেছনে যার একটি ছায়া,
বৃক্ষলতার মাঝমেরুতে
ঠায় দাঁড়িয়ে অবাক দেখো,
একটি মানব তোমার প্রাণের বায়ুসখা,
মেঘবায়ুতে উড়াল পালক আদর শেষে
বঙ্গমাটি স্থির বিছানা।
একটি মানব দীঘল গতর
আকাশে যার শির ঠেকেছে,
হাজার সালের পাঁজি হাতে
ঠাঁই-ঠিকানা দিচ্ছে চিনে
হৃদয়ে যার পাপড়ি-জন্ম
সে তো একক গন্ধবণিক।
আকাশটাকে কেটে কেটে নীলের অনেক কুঞ্জ বানাও
সেখানে চোখ বসিয়ে দেখো,
দেখবে তুমি পরম মানব, বিশ্বমানব,
লক্ষ চোখের দৃষ্টিদানে সূর্য এসে চরণ চুমে।
পতাকাটা পাঞ্জাবি গো, একটি মানব,
চরণে তার দেশের মাটি,
কপালে গো কাদার তিলক,
কল্যাণেরই স্বর্গসদন।