একদিনে ৯৬৯ জনের মৃত্যু, শনাক্ত সাড়ে ৪ লাখ

আপডেট: মে ২৪, ২০২২, ২:১৩ অপরাহ্ণ

ছবি: সংগৃহীত

সোনার দেশ ডেস্ক :


বিশ্বে করোনাভাইরাসে মৃত্যু বেড়েছে। তবে আগের দিনের তুলনায় কিছুটা কমেছে সংক্রমণ। গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় ৯৬৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর এই ভাইরাসে আক্রান্ত নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৫৩ হাজার ৬১৩ জনে।

এ নিয়ে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৩ লাখ ১ হাজার ৭১৯ জনে। আর করোনা শনাক্ত রোগী বেড়ে ৫২ কোটি ৮২ লাখ ৫৪ হাজার ৩৯৩ জন হয়েছে।
এর আগের ২৪ ঘণ্টায় ৪৭৬ জনের মৃত্যু হয়। ওই সময়ে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হন ৪ লাখ ৭৬ হাজার ১০৩ জন।

মঙ্গলবার (২৪ মে) সকাল সাড়ে ৮টায় আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যানবিষয়ক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে এসব তথ্য জানা যায়।
ওয়ার্ল্ডোমিটারসের তথ্যানুযায়ী, দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া। দেশটিতে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ২৫২ জনের।

এ নিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় মৃত্যু বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮ হাজার ৫৯৯ জনে। এ সময়ে দেশটিতে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৭৫৩ জন। মোট শনাক্ত বেড়ে হয়েছে ৪২ লাখ ৩৫ হাজার ১৮৩ জন।

দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় এরপরই যুক্তরাষ্ট্র। করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১০ লাখ ২৯ হাজার ১২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ১০৬ জন। আর নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৫৩ হাজার ২৮৭ জন। এ নিয়ে মোট শনাক্ত বেড়ে হয়েছে ৮ কোটি ৫১ লাখ ১৩ হাজার ৯৬২ জনে।

রাশিয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৭৬ জন। আর রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৪ হাজার ১৫৮ জন। এছাড়া মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ কোটি ৮২ লাখ ৯৭ হাজার ৬০৮ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৭৮ হাজার ৪২৬ জনের।

ভারতে একদিনে ১ হাজার ১০৬ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা দেশটিতে মোট শনাক্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ কোটি ৩১ লাখ ৩৯ হাজার ৪৯৯ জনে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এই সময়ে ৩১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশে শনাক্ত রোগী বেড়ে দাঁড়ালো ১৯ লাখ ৫৩ হাজার ২৬৪ জনে। আর মহামারির শুরু থেকে দেশে এ পর্যন্ত ২৯ হাজার ১৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চিনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ২০২০ সালের ১১ মার্চ করোনাকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডবিøউএইচও)।
তথ্যসূত্র: জাগোনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ