‘একমাসের মধ্যে শব্দদূষণ নিয়ন্ত্রণ করতে হবে’

আপডেট: জুন ২৯, ২০২২, ১০:১১ অপরাহ্ণ

অনুষ্ঠানে শুদ্ধাচার পুরস্কার দেওয়া হয়

সোনার দেশ ডেস্ক:


পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন বলেছেন, আগামী একমাসের মধ্যে শব্দদূষণ নিয়ন্ত্রণের অগ্রগতি জনগণের কাছে দৃশ্যমান করতে হবে। এজন্য নিষিদ্ধ হাইড্রোলিক হর্ন বন্ধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণসহ প্রয়োজনীয় সকল উদ্যোগ বাস্তবায়ন করতে হবে। বুধবার (২৯ জুন) মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এর অধীন সাতটি দফতর-সংস্থার সঙ্গে ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) সই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিবেশমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. ফারহিনা আহমেদের সঙ্গে পরিবেশ অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. আবদুল হামিদ, বন অধিদফতরের প্রধান বন সংরক্ষক মো. আমীর হোসাইন চৌধুরী, বাংলাদেশ বন গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক ড. রফিকুল হায়দার, বাংলাদেশ বনশিল্প উন্নয়ন করপোরেশনের চেয়ারম্যান মো. শহিদুল ইসলাম, বাংলাদেশ ন্যাশনাল হারবেরিয়ামের পরিচালক সঞ্জয় কুমার ভৌমিক, বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মো. রেজাউল হক এবং বাংলাদেশ রাবার বোর্ড চেয়ারম্যান সৈয়দা সারওয়ার জাহান নিজ নিজ সংস্থার পক্ষে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) সই করেন। এসময় শুদ্ধাচার পুরস্কারও প্রদান করা হয়।

পরিবেশমন্ত্রী বলেন, জাতীয় অঙ্গীকার বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে দেশের পরিবেশের উন্নয়ন দৃশ্যমান করতে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রতি কঠোর নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, অবৈধ বনভূমি পুনরুদ্ধার এবং দেশের বৃক্ষাচ্ছাদিত ভূমির পরিমাণ ২৪ শতাংশে উন্নীত করতেও ব্যবস্থা নিয়ে হবে।

তিনি বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত দেশে পরিণত করার লক্ষ্য পূরণে আন্তরিক হতে হবে।
এপিএ সই করার পর মন্ত্রী পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের ২০২১-২২ অর্থবছরে শুদ্ধাচার পুরস্কারের জন্য মনোনীত উপসচিব দেবময় দেওয়ান, ব্যক্তিগত কর্মকর্তা রুহুল আমীন এবং অফিস সহায়ক হাসিনা আক্তারকে পুরস্কার হিসেবে একমাসের মূল বেতন, সনদ ও সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন।
তথ্যসূত্র: বাংলাট্রিবিউন