একযুগ পর বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার জয়

আপডেট: নভেম্বর ২৬, ২০২২, ৮:০৮ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়া দুর্দান্ত। ওয়ানডে বিশ্বকাপে পাঁচবার চ্যাম্পিয়ন। টি-টোয়েন্টিতে একবার। তবে ফুটবলে সাদামাটা এক দলই অস্ট্রেলিয়া। অবশ্য ফুটবলের পরিধিও বিশাল। সেই বিশাল মঞ্চে এবার সকারুদের দাপট। প্রথম ম্যাচে ফ্রান্সের কাছে উড়ে গেলেও তিউনিশার বিপক্ষে দারুণ এক জয় তুলে নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। একযুগ পর ফুটবল মহাযজ্ঞে জয়ের হাসি তাদের।

শনিবার আল জানোব স্টেডিয়ামে তিউনিশিয়াকে ১-০ গোলে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। প্রথমার্ধে মিচেল ডুকের গোলটিই তাদের এনে দিয়েছে দুর্দান্ত এক জয়। ২৩ মিনিটে তার দেওয়া হেডই গড়ে দিয়েছে ম্যাচের পার্থক্য। অস্ট্রেলিয়া পেয়েছে গুরুত্বপূর্ণ ৩ পয়েন্ট।
ফ্রান্সের কাছে ৪-১ গোলে হেরে বিশ্বকাপ শুরু হয় অস্ট্রেলিয়ার। অন্যদিকে ইউরোপের অন্যতম শক্তি হয়ে ওঠা ডেনমার্ককে রুখে দিয়েছিল তিউনিশিয়া। দুই দলের প্রথম ম্যাচের পারফরম্যান্স বিবেচনায় নিলে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কিছুটা হলেও এগিয়ে ছিল আফ্রিকার দেশটি। তবে মাঠের পারফরম্যান্সে দেখা গেলো অন্য চিত্র। তিউনিশিয়াকে হারিয়ে অস্ট্রেলিয়া জিতেছে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ।

ম্যাচের শুরু থেকে ছিল অস্ট্রেলিয়ার দাপট। তিউনিশিয়াকে চাপে রাখে তারা। গোলও পেয়ে যায় ২৩ মিনিটে। লেফট উইং থেকে ক্রেগ গুডউইনের বাড়ানো থ্রু বল তিউনিশিয়ার এক খেলোয়াড়ের পায়ে লেগে উঠে গেলে সেই বল লাফিয়ে হেড করে জালে জড়ান ডুক।
গোল শোধে মরিয়া তিউনিশিয়া চেষ্টার পর চেষ্টা করে গেছে। তবে ফিনিশিংয়ের ঘাটতি ও অস্ট্রেলিয়ার কড়া রক্ষণে গোলের দেখা পায়নি। শেষ দিকে বেশ কয়েকটি ভালো সুযোগ তৈরি করেছিল তারা। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার রক্ষণ বাধায় বারবার হতাশায় ডুবতে হয়েছে।
ফলে ১২ বছর পর বিশ্বকাপে প্রথম জয়ের দেখা পায় অস্ট্রেলিয়া। ২০১০ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিশ্বকাপের পর এটাই প্রথম জয় তাদের। সেবার গ্রুপ পর্বে সার্বিয়াকে হারিয়েছিল সকারুরা। আরেকটি অর্জনও আছে তাদের। ১৯৭৪ সালের পর বিশ্বকাপে প্রথমবার গোল হজম না করে মাঠ ছাড়লো অস্ট্রেলিয়া।
তথ্যসূত্র: বাংলাট্রিবিউন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ