এক কোটি ৩০ লাখ গাছ লাগালো তুরস্ক

আপডেট: নভেম্বর ১৩, ২০১৯, ১২:২৮ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


পরিবেশের সুরক্ষায় একদিনে এক কোটি ৩০ লাখ গাছ লাগিয়েছে তুরস্ক। ১১ নভেম্বর সোমবার দেশজুড়ে এ বৃক্ষরোপণ কমর্সূচি পালিত হয়। এমনকি গাছ লাগানোর জন্য ঘোষণা করা হয় সরকারি ছুটি। প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান থেকে শুরু করে সরকারের মন্ত্রি, উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, এনজিও প্রতিনিধি এবং সর্বস্তরের মানুষ দেশজুড়ে বিভিন্ন স্থানে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে অংশ নেন।
তুরস্কের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সি-র খবরে বলা হয়েছে, এদিন দেশজুড়ে লাগানো গাছের পরিমাণ এক কোটি ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে। পরিচ্ছন্ন বাতাসে শ্বাস নিতে সবুজায়নের অংশ হিসেবে এ কর্মসূচি নেয়া হয়েছে।
মূলত সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া এক পোস্টের জেরে এ কর্মসূচি পালিত হয়। ওই পোস্টে এনিস সাহিন নামের এক তুর্কি নাগরিক বলেন, দুর্দান্ত একটি আইডিয়া পেয়েছি। মুসলিম দেশ হিসেবে আমরা ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহায় সরকারি ছুটি পাই। বৃক্ষরোপণের জন্য একটি সরকারি ছুটি হলে কেমন হয়? আসুন দেশের ৮ কোটি ২০ লাখ মানুষ একসঙ্গে ওই দিনটিতে গাছ লাগাই। পরবর্তী প্রজন্মের জন্য আমরা একটি সবুজ পৃথিবী রেখে যেতে চাই।
এনিস সাহিন-এর পোস্টটি ভাইরাল হয়ে পড়লে এক পর্যায়ে এটি তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ানের নজরে আসে। পোস্টদাতাকে ধন্যবাদ দিয়ে তিনি বলেন, চমৎকার একটি আইডিয়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ। শিগগিরই আমি কর্মকর্তাদের সঙ্গে বসে বৃক্ষরোপণের জন্য একটি ছুটির দিন ঘোষণা করবো।
পরে সবুজ তুরস্কের জন্য বনায়ন কর্মসূচির ঘোষণা দেন এরদোয়ান। প্রতি বছর ১১ নভেম্বরকে জাতীয় দিবস ঘোষণা করেন তিনি। এবারের কর্মসূচির অংশ হিসেবে দেশজুড়ে এক কোটি ৩৭ লাখ ৪৭ হাজার ৭০৮টি গাছের চারা বিতরণ করা হয়।
রাজধানী আঙ্কারায় ক্ষমতাসীন দল একে পার্টির বৃক্ষরোপণ অনুষ্ঠানে এরদোয়ান বলেন, গত ১৭ বছরে তুরস্ক ৪৫০ কোটি চারাগাছ লাগিয়েছে। আমাদের বনাঞ্চল ২০ দশমিক ৮ মিলিয়ন হেক্টর থেকে বেড়ে ২২ দশমিক ৬ মিলিয়নে দাঁড়িয়েছে।
সূত্র: আনাদোলু এজেন্সি, ডেইলি সাবাহ, বাংলা ট্রিবিউন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ