এক নজরে পদ্মা সেতু

আপডেট: অক্টোবর ১, ২০১৭, ১২:০৬ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


মুন্সীগঞ্জ জেলার মাওয়া, মাদারীপুর জেলার শিবচর ও শরীয়তপুর জেলার জাজিরায় চলছে স্বপ্নের পদ্মা সেতুর প্রথম স্প্যান বসানোর উৎসব। দিনরাত কাজ চলছে এই তিন জেলা বেষ্টিত পদ্মা নদীর পাড়ে। পুরোদমে চলছে সেতু নির্মার্ণের কাজ। দেশের বৃহত্তম এ সেতু নির্মাণের সব কাজ তদারকি করছে সেনাবাহিনী। সরকারের পরিকল্পনা অনুযায়ী ২০১৮ সালের শেষের দিকে যানবাহন চলাচলের জন্য সেতু চালু করার কথা রয়েছে। এ সেতু নিয়ে দেশের মানুষের আগ্রহের কমতি নেই। আসুন জানা যাক এ সেতু সম্পর্কে।
কী আছে পদ্মা সেতুতে?
১. পদ্মা সেতুর প্রকল্পের নাম পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্প।
২. পদ্মা সেতুর ধরন দ্বিতল বিশিষ্ট। এই সেতু কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে।
৩. পদ্মা সেতু প্রকল্পে মোট ব্যয় (মূল সেতুতে তৃতীয় দফায় বাড়ানোসহ) ৩০ হাজার ৭৯৩ কোটি ৩৯ লাখ টাকা।
৪. ২০১৭-১৮ অর্থবছর পদ্মা সেতু প্রকল্পে সরকারের বরাদ্দ ৫২৪ কোটি টাকা।
৫. পদ্মা সেতু প্রকল্পে নদীশাসন ব্যয় ৮ হাজার ৭০৭ কোটি ৮১ লাখ টাকা।
৬. পদ্মা সেতু প্রকল্পে চুক্তিবদ্ধ কোম্পানির নাম চায়না রেলওয়ে গ্রুপ লিমিটেড।
৭. এ সেতুতে থাকবে গ্যাস, বিদ্যুৎ ও অপটিক্যাল ফাইবার লাইন পরিবহন সুবিধা।
৮. পদ্মা সেতুতে রেললাইন স্থাপন হবে নিচ তলায়।
৯. পদ্মা সেতুর প্রস্থ হবে ৭২ ফুট, এতে থাকবে চার লেনের সড়ক।
১০. পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য হচ্ছে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার।
১১. পদ্মা সেতুর ভায়াডাক্ট ৩ দশমিক ১৮ কিলোমিটর।
১২. পদ্মা সেতুর সংযোগ সড়ক দুই প্রান্তে (জাজিরা ও মাওয়া) ১৪ কিলোমিটার।
১৩. পদ্মা সেতু প্রকল্পে নদীশাসন হয়েছে দুই পাড়ে ১২ কিলোমিটর।
১৪. পদ্মা সেতু প্রকল্পে কাজ করছে এমন জনবলের পরিমাণ প্রায় ৪ হাজার।
১৫. পদ্মা সেতুর ভায়াডাক্ট পিলার ৮১টি।
১৬. পানির স্তর থেকে পদ্মা সেতুর উচ্চতা হবে ৬০ ফুট।
১৭. পদ্মা সেতুর পাইলিং গভীরতা হচ্ছে ৩৮৩ ফুট।
১৮. প্রতি পিলারের জন্য পাইলিং হবে ৬টি।
১৯. পদ্মা সেতুর মোট পাইলিঙের সংখ্যা ২৬৪ টি।
২০. পদ্মা সেতুর মোট পিলারের সংখ্যা ৪২টি।
২১. পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ শেষ হবে ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে।
তথ্যসূত্র: বাংলা ট্রিবিউন