এখনো শিখছেন সাব্বির-মিরাজরা!

আপডেট: নভেম্বর ১৮, ২০১৬, ১১:৪৫ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক
কথায় আছে শিক্ষার কোন বয়স এবং সময় নেই। হয়তো এ প্রবাদ থেকেই সংবাদ সম্মেলনে সাব্বির মিরাজদের দল রাজশাহী কিংসের ইংলিশ অলরাউন্ডার সামিত প্যাটেল জানালেন, এখনো শিখছেন তারা। চার ম্যাচের তিনটিতেই লড়াই করে হার। ম্যাচের একসময় দাপটের সঙ্গে এগিয়ে থাকলেও শেষদিকে এসে পেরে উঠছে না দলটি। তাই জয়ের ধারায় ফিরতে হলে আরও শিখতে হবে বলে মনে করেন প্যাটেল।
শুক্রবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে সামিত প্যাটেল বলেন, ‘আমরা এখনও শিখছি। ১৯০ অনেক রান। ওরা ১৫ রান বেশি করেছে। আমরা শেষের দিকে ভালো বোলিং করতে পারিনি। ডেথ ওভারে বোলিংয়ে আমাদের অভিজ্ঞতায় ঘাটতি রয়েছে। আমি মনে করি, পরের ম্যাচে আমরা আরো ভালো করবো।’
ব্যাটিংয়ে যেমন শেষ দিকে ভালো করতে পারে নি রাজশাহী, তেমনি বোলিংয়ের শেষটাও ভালো যায় নি। শেষ সাত ওভারে ৯৭ রান সংগ্রহ করে দলটি। রাজুর শেষ দুই ওভারে আসে ৩৯ রান। আর ব্যাটিংয়ে ঝড় তুলে চিটাগাংকে বড় সংগ্রহ এনে দেন আফগানিস্তানের অলরাউন্ডার মোহাম্মদ নবি।
‘নবি খুব ভালো খেলেছে, এনামুলও। আমার মনে হয় নবি ছিল সত্যিকারের ম্যাচ উইনার। আমাদের ফিল্ডিংও ভালো ছিল না। এখানটায় উন্নতির অনেক জায়গা আছে। আমরা এখনও শিখছি, উন্নতি করছি।’
১৯১ রানের বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুটা দারুণ করেছিল রাজশাহী। মুমিনুল, জুনায়েদ ও সাব্বিরের ব্যাটে দাপটের সঙ্গে ম্যাচে ছিল তারা। তবে শেষদিকের ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় উল্টো হেরে যায় তারা। নির্দিষ্ট কেউ ম্যাচের শেষ পর্যন্ত দায়িত্ব নিতে না পারার কারণেই হেরেছেন বলে মনে করেন প্যাটেল।
‘যখন ১৯০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে হয় তখন একজনের অন্তত ৭০-৭৫ রানের ইনিংস খেলতে হবে। জুটিও খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়; কিন্তু ভালো শুরু পেলেও আমরা খুব ভালো জুটি গড়তে পারি নি। আমরা জানতাম এটা কঠিন লক্ষ্য হবে। আমাদের শেষ পর্যন্ত একজন সেট ব্যাটসম্যান দরকার ছিল, এই ম্যাচে যা ছিল না।’ তবে হারের পর ও কিছুটা সন্তুষ্টি খুঁজে পাচ্ছেন প্যাটেল। ধারাবাহিকভাবে ভালো ক্রিকেট খেলায় খুশি তিনি। দলের খেলোয়াড়দের উপর আস্থা রয়েছে তার। একটি জয়ে মোমেন্টাম ফিরে পেলেই আত্মবিশ্বাস ফিরে পাবেন বলেও আশা করছেন এ অলরাউন্ডার।
‘আমরা হেরেছি; কিন্তু এরপরও ১৭০ রান করেছি। আমরা কিছু ভালো করছি, কিছু গড়পড়তার ক্রিকেট খেলছি। এটাই টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট। আমরা জানি, আমাদের কয়েকজন ম্যাচ উইনার আছে। নিজেদের ওপর আমাদের বিশ্বাস রাখতে হবে। এখনও অনেক ম্যাচ বাকি আছে। আমরা শেষ চারে থাকতে চাই। একটা জয় মোমেন্টাম আমাদের দিকে নিয়ে আসবে।’