এবারের ইদযাত্রা আগের যে কোনো সময়ের চেয়ে স্বস্তিদায়ক ছিল

আপডেট: মে ৬, ২০২২, ১২:৪৮ পূর্বাহ্ণ

সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলছেন, ‘এবারের ইদযাত্রায় অতীতের যে কোনো সময়ের চেয়ে সড়কের অবস্থা ভালো।’
প্রকৃতঅর্থেই কি সড়কের ইদযাত্রা ভাল ছিল? হ্যাঁ ভাল ছিল। সংবাদ মাধ্যমগুলো তারই সাক্ষ্য দেয়। শুধু সড়কে নয়- এবার ট্রেনযাত্রা, লঞ্চযাত্রাও ছিল আগের যে কোনো সময়ের চাইতে অপেক্ষাকৃত ভাল ছিল। ইদমুখি মানুষের হয়রানি ও দুর্ভোগ কম হয়েছে।
সংবাদ মাধ্যমগুলো বলছে, মহামারীর বিধি-নিষেধহীন ইদে সড়কে যাত্রীর চাপ বেড়ে বড় ধরনের সঙ্কটের শঙ্কা করা হচ্ছিল কিন্তু বাস্তবিক তেমনটি ঘটেনি।
ঢাকা থেকে বিভিন্নমুখি সড়কে চলাচল মোটামুটি নির্বিঘ্নই ছিল। ঢাকা থেকে উত্তরের পথে গাজীপুর-টাঙ্গাইলে, ময়মনসিংহের পথে গাজীপুরে, চট্টগ্রামের পথে মেঘনা সেতুর টোল প্লাজা এবং কুমিল্লার কিছু এলাকা এবং খুলনা-বরিশালের পথে দুই ফেরি ঘাটে যানজটের শঙ্কা ছিল। কিন্তু তেমন কিছু ঘটেনি।
কী কারণে এবার ইদযাত্রা ব্যতিক্রম- সেই প্রশ্নে মহাসড়ক পুলিশের এক কর্মকর্তা বলছেন, তারা যানজটপ্রবণ স্থানগুলো চিহ্নিত করে সেখানে যেন সমস্যা না হয়, আগাম ব্যবস্থা নিয়েছিলেন। । অবশ্য আগের তুলনায় সড়কপথের উন্নয়ন হয়েছে। ফলে যানজট তুলনামূলকভাবে কম হয়েছে।
এবার সরকার নির্ধারিত ইদুল ফিতরের ছুটি ২ থেকে ৪ মে, অর্থাৎ সোম থেকে বুধবার। কিন্তু তার আগে ১ মে রোববার মে দিবসের ছুটি, তার আগের দুদিন আবার সাপ্তাহিক ছুটি। ফলে গণপরিবহনে বাড়ি যাওয়ার চাপ একদিনে না পড়ে ভাগ হয়ে যায়। ইদের দুদিন আগে রোববার রাতে ঢাকার কল্যাণপুরে বাস দাঁড়িয়ে থাকলেও যাত্রী মিলছিল না। ইদের দুদিন আগে রোববার রাতে ঢাকার কল্যাণপুরে বাস দাঁড়িয়ে থাকলেও যাত্রী মিলছিল না।
এতো গেল সড়কযাত্রার কথা। ট্রেনের ক্ষেত্রেও এবার যাত্রীদের টিকিট কাটার ভোগান্তি ছাড়া তেমন দুর্ভোগ পোহাতে হয়নি। ট্রেনগুলোতে সিডিউল বিপর্যয়ের আশংকা করা হচ্ছিল কিন্তু মোটেও তা মাত্রা ছাড়ায়নি। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ১৫/২০ মিনিট বিলম্বে ট্রেন ছাড়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে সড়কে প্রাণ ঝরার ক্ষেত্রে কোনো উন্নতি লক্ষ্য করা যায় নি। সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর হার আশংকাজনকই বলা যায়।
সর্বোপরি এবারের ইদযাত্রা অনেকটাই স্বস্তিদায়ক ছিল। যাত্রীদের দুর্ভোগ আগের যে কোনো সময়ের চেয়ে কম ছিল। আইন-শৃঙ্কলা পরিস্থিতি বেশ উন্নত ছিল। আগামীতে স্বস্তির ইদযাত্রা আরো স্বস্তিদায়ক এবং হয়রানি ও ভোগান্তিমুক্ত হবে এই প্রত্যাশা রইল।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ