এশিয়া কাপে ভারতের চেয়ে পাকিস্তানকে এগিয়ে রাখছেন সরফরাজ

আপডেট: আগস্ট ১৯, ২০২২, ৪:৪০ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


এশিয়া কাপের দ্বিতীয় দিনেই এবার আগুনে এক লড়াই। দুবাইয়ে মুখোমুখি হবে ভারত ও পাকিস্তান। ফর্ম-প্রেক্ষাপট-বাস্তবতা যেমনই থাকুক, চিরপ্রতিদ্ব›দ্বী এই দুই দলের লড়াইয়ে আগে থেকে কিছু অনুমান করা কঠিন। তবে পাকিস্তানের কিপার-ব্যাটসম্যান সরফরাজ খানের চোখে সম্ভাবনায় এগিয়ে থাকবে তার দেশ। ওই কন্ডিশনের অভিজ্ঞতা যে পাকিস্তানিদেরই বেশি।

দুই দলের সবশেষ লড়াইয়ে গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দুবাইয়ে ভারতকে ১০ উইকেটে উড়িয়ে দিয়েছিল পাকিস্তান। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে পাকিস্তানের প্রথম জয় সেটি। সেই একই ভেন্যুতে আগামী ২৮ অগাস্ট এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের আসরে গ্রæপ পর্বে মুখোমুখি হবে এই দুই দল।

সরফরাজ নিজে এবার এশিয়া কাপের দলে জায়গা পাননি। তবে উৎসুক চোখে এই ম্যাচে ঠিকই তাকিয়ে পাকিস্তানকে ১০০ আন্তর্জাতিক ম্যাচে নেতৃত্ব দেওয়া এই ক্রিকেটার। স্পোর্টস পাকটিভিকে তিনি বললেন, বিশ্বকাপের ওই জয় এবারও পাকিস্তানকে উজ্জীবিত করবে।

“যে কোনো প্রতিযোগিতার সুর ঠিক করে দেয় প্রথম ম্যাচটিই। আমাদের প্রথম খেলা ভারতের সঙ্গে। আমাদের মনোবল এই ম্যাচে অনেক উঁচুতে থাকবে, কারণ সবশেষ যখন আমরা মুখোমুখি হয়েছিলাম, ভারতকে হারিয়েছিলাম এই ভেন্যুতেই।”

“পাকিস্তান এই কন্ডিশন ও মাঠগুলো সম্পর্কে ভালো জানে। এখানে আমরা পিএসএলের ম্যাচ খেলেছি অনেক, আমাদের হোম সিরিজের অনেক ম্যাচ খেলেছি। হ্যাঁ, ভারতও এখানে আইপিএল খেলেছে বটে। তবে এই কন্ডিশনে আমাদের মতো একটা অভিজ্ঞতা ওদের নেই।”

গত বিশ্বকাপের ওই লড়াইয়ে নতুন বলে আগুনে বোলিং করে ভারতকে শুরুতেই বিপাকে ফেলেছিলেন শাহিন শাহ আফ্রিদি। চোট শঙ্কা মাথায় রেখে তরুণ এই বাঁহাতি ফাস্ট বোলারকে চলতি নেদারল্যান্ডস সিরিজে বিশ্রাম দিয়েছে পাকিস্তান।
সরফরাজের মতে, আফ্রিদিকে এই ম্যাচে প্রয়োজন হবে পাকিস্তানের।

“শাহিন শাহ আফ্রিদিকে ফিট পাওয়া পাকিস্তানের জন্য হবে গুরুত্বপূর্ণ। ওর বড় ভূমিকা থাকবে। ভারতীয় যদিও এখন খুব ভালো ক্রিকেট খেলছে। তবে আমরাও ভালো খেলছি, বিশেষ করে সংক্ষিপ্ত সংস্করণে।”
টি-টোয়েন্টিতে এখনও পর্যন্ত ৯টি ম্যাচ খেলেছে ভারত ও পাকিস্তান। তাতে পাকিস্তানের জয় স্রেফ দুটি।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ