‘ওষুধ নয়, সুরাই পারে বাঁচাতে’, লকডাউন ঘোষণা হতেই দিল্লির মদের দোকানের বাইরে লম্বা লাইন

আপডেট: এপ্রিল ১৯, ২০২১, ৭:৪৩ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


আগামী ৬ দিন দিল্লিতে লকডাউন ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। আর তার পরেই মদ কেনার হুড়োহুড়ি পড়ে গিয়েছে রাজধানীর বেশ কিছু দোকানে। যেখানে সামাজিক দূরত্বের কোনও বালাই নেই, অনেকের মুখেই নেই মাস্ক। ক্রেতাদের সেই লম্বা লাইনের ছবি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াজুড়ে।
অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানিয়েছেন, “আজ সোমবার রাত ১০ থেকে পরের সোমবার সকাল ৫টা পর্যন্ত লকডাউন থাকবে দিল্লি। কিন্তু এই সময়ের মধ্যে চিকিৎসা এবং খাদ্য সংক্রান্ত জরুরি পরিষেবা চালু থাকবে।” কিন্তু মানুষের কাছে মনে হয় খাবারের থেকেও মদের চাহিদা বেশি। ভাইরাল হওয়া ছবি ভিডিও থেকে এমনটা মনে হতেই পারে।
দিল্লির খান মার্কেট, গোলে মার্কেটের মতো এলাকায় দেখা গেল, একের পর এক মদের দোকানের সামনে কয়েকশো ক্রেতার ভিড়। এই দিন ছয়েকের মদের স্টক ঠিক রাখতে হুড়োহুড়ি পড়ে গিয়েছে। সেই লাইনে মহিলা থেকে পুরুষ কেউ পিছিয়ে নেই। এক নারীতো দাবি করে বলসেন, “৩৫ বছর ধরে মদ খাচ্ছি। ওষুধের প্রয়োজন হয় না। ইঞ্জেকশনে কিছু লাভ হবে না। মদেই যা লাভ হওয়ার হবে।” সংবাদ সংস্থার ক্যামেরার সামনে করা সেই মন্তব্য এখন ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।
লকডাউনে কিছু গাইডলাইন ঘোষণা করেছেন কেজরিওয়াল। ওষুধ, খাবারের মতো পরিষেবা স্বাভাবিক রাখা হলেও বিয়ের মতো অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রে কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। বিয়ের অনুষ্ঠানে ৫০ জনের বেশি যোগদান করতে পারবেন না। এবং তাঁদের জন্যও দিল্লি সরকার আলাদা করে পাস ইস্যু করবে। দিল্লির পরিস্থিতি দেশের সব থেকে খারাপ রাজ্যগুলির মধ্যে একটি। রবিবার দিল্লিতে নতুন করে সাড়ে ২৫ হাজার জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ