ওসি প্রদীপের ফাঁসির দাবিতে আদালত চত্বরে মানববন্ধন

আপডেট: জানুয়ারি ৩১, ২০২২, ১২:২৮ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক:


টেকনাফে পুলিশের গুলিতে নিহত সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলার আসামি টেকনাফ থানার বরখাস্ত ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ দাসের ফাঁসির দাবিতে কক্সবাজার আদালত চত্বরে মানববন্ধন চলছে।

সোমবার (৩১ জানুয়ারি) সকাল সোয়া ১০টার দিকে সর্বস্তরের জনগণের ব্যানারে কক্সবাজার দায়রা জজ আদালত চত্বরে এই মানববন্ধন কর্মসূচি শুরু হয়।
এতে ওসি প্রদীপের নির্যাতনের শিকার শতাধিক মানুষ অংশ নেন।

মানববন্ধনে অংশ নেওয়া টেকনাফ থানার খোনকার পাড়ার আব্দুল হালিম বাংলানিউজকে বলেন, বিনা দোষে আমার পরিবারের সদস্যদের নির্যাতন করা হয়েছিল। প্রদীপ টেকনাফে থাকার সময় নানাভাবে আমাদের নির্যাতন করেছেন। প্রদীপের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি করছি।

ওসি প্রদীপের নির্যাতনের শিকার টেকনাফ থানার সদর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য হামজালাল বাংলানিউজকে বলেন, ২০১৮ সালে মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিলাম। প্রদীপের দুই বাহিনী ছিল। ২০১৮ সালে দিন দুপুরে আমার ভাই ইউসুফ জালাল বাহাদুরকে ধরে নিয়ে যায়।

রাতে ক্রসফায়ার দিয়ে হত্যা করে তাকে। আমাকেও ক্রসফায়ারে জন্য নিয়ে গিয়েছিল। সিনিয়র অফিসারের মোবাইলে কল আসার পর ঘটনাস্থল থেকে নিয়ে আসেন। প্রদীপের ফাঁসির দাবি জানাই।

টেকনাফ থানার মহেশখালী এলাকা থেকে ২০১৯ সালের ১৮ নভেম্বর সকালে রিকশাচালক আব্দুল আজিজকে (২০) ওসি প্রদীপ ধরে নিয়ে যান। তার বিরুদ্ধে থানায় কোনো মামলা ছিল না। রাতে মেরিন ড্রাইভ সড়কে তাকে হত্যা করা হয় বলে জানান নিহত আজিজের মা হালিমা খাতুন।

বাংলানিউজকে তিনি বলেন, আমার ছেলেকে বিনা দোষে ও বিনা কারণে হত্যা করা হয়েছে। আমি ওসি প্রদীপসহ ক্রসফায়ার করে হত্যা করা সব পুলিশ সদস্যের ফাঁসি চাই।
সোমবার (৩১ জানুয়ারি) কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইল মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করবেন।

এ মামলার অন্যতম আসামি টেকনাফ থানার ওসি (বরখাস্ত) প্রদীপ দাস। তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ