কচি-চঞ্চলের ‘জুতো আবিষ্কার’

আপডেট: August 9, 2017, 12:55 am

সোনার দেশ ডেস্ক


নিজের জুতো ধরে রাখতে আপ্রাণ চেষ্টা করছেন চঞ্চল চৌধুরী। কিন্তু অপর পাশ থেকে অন্য কেউ খুব জোর প্রয়োগ করে তা ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে। বল প্রয়োগ ও মানসিক উত্তেজনা যখন চূড়ান্ত পর্যায়ে তখন চঞ্চলের মায়ের ডাকে তার ঘুম ভেঙে যায়। দৃশ্যটি ‘জুতো আবিষ্কার’ নাটকের।
জনপ্রিয় অভিনেতা-নির্মাতা কচি খন্দকার। অভিনয়ের পাশাপাশি ব্যতিক্রমধর্মী গল্প নিয়ে নাটক নির্মাণ করে থাকেন তিনি। এবার ঈদুল আজহা উপলক্ষে নির্মাণ করলেন ‘জুতো আবিষ্কার নামে একক নাটক। নাটকটির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী।
নাটকের গল্প প্রসঙ্গে কচি খন্দকার রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘চঞ্চল চৌধুরী বিজ্ঞানমনস্ক একজন মানুষ। অনেকটা ভাবুক তবে খুব অগোছালো। পায়ের জুতো কোথায় রাখেন তার হদিস থাকে না। বাড়ির বাইরে বেরুতে চাইলে এ নিয়ে বেশ লঙ্কাকা- বেধে যায়। একবার দেখা যায়- চঞ্চল রিকশায় করে যাচ্ছেন। বেখেয়ালে কখন যেন তার পা থেকে একটি জুতো পড়ে যায়। বেশ দূরে চলে যাওয়ার পর চঞ্চল বুঝতে পারেন তার এক পায়ের জুতো পড়ে গেছে। এরপর রিকশা ঘুড়িয়ে জুতো খুঁজতে শুরু করেন। এমন নানা ঘটনার মধ্য দিয়ে এগিয়েছে নাটকটির কাহিনি।’
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘জুতা আবিষ্কার’ নামে একটি কবিতা রয়েছে। এ নাটকের সঙ্গে কবিতার গল্পের কোনো মিল রয়েছে কিনা জানতে চাইলে কচি খন্দকার বলেন, ‘হ্যাঁ, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জুতা আবিষ্কার নামে একটি কবিতা রয়েছে। তবে আমার এ নাটকের গল্পের সঙ্গে রবীন্দ্রনাথের কবিতার কোথাও কোনোরকম মিল নেই। গল্পটি একদম মৌলিক। এটি আমারই রচনা, যাতে ভিন্নরকম কিছু দেখতে পাবেন দর্শক। আমি বরাবরই চেষ্টা করে থাকি ভিন্ন ঘরানার কিছু ফ্রেমবন্দি করতে। যেসব বিষয়ে কেউ হাত দেয় না। এমন ব্যতিক্রমধর্মী কিছু তুলে আনার চেষ্টা করেছি নাটকটিতে।’
চঞ্চল ছাড়াও নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন-নাদিয়া মিম, মিলন ভট্টাচার্য, ইকবাল প্রমুখ। সম্প্রতি নগরীর উত্তরার বিভিন্ন স্থানে নাটকটির শুটিং শেষ হয়েছে। ঈদুল আজহায় বৈশাখী টেলিভিশনে নাটকটি প্রচারিত হবে।-রাইজিংবিডি