কত কাল বেঁচে থাকা যায়? কী বলছেন গবেষকেরা

আপডেট: জুন ২, ২০২১, ৯:২৫ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


অনেক দিন বেঁচে থাকা। যৌবন ধরে রাখা। এ সব ইচ্ছা মানুষের মনের মধ্যে ঘুরপাক খায়। তাই তা নিয়ে গবেষণাও চলছে অনেক দিন ধরে। আমেরিকার সাহিত্যিক মার্ক টোয়েন বলেছিলেন, জীবন অনেক সুখের হত যদি ৮০-তে শুরু করে ধীরে ধীরে ১৮-এ পৌঁছনো যেত। এখন সিঙ্গাপুরের একদল বিজ্ঞানী মেতেছেন তেমনই চর্চায়। মানুষের আয়ু কত লম্বা হতে পারে, জানার চেষ্টা করছেন তাঁরা।
‘নেচার কমিউনিকেশন’ নামক এক জার্নালে সেই বিজ্ঞানীরা সম্প্রতি একটি গবেষণাপত্র প্রকাশ করেছেন। তাতে তাঁরা উল্লেখ করেছেন যে, ১২০-১৫০ বছর পর্যন্ত আয়ু থাকতে পারে মানুষের। সেখানে আরও বলা হয়েছে, মৃত্যু হল একটি জৈবিক প্রক্রিয়া। মানসিক বা শারীরিক চাপের উপরে তা নির্ভরশীল নয়।
বার্ধক্য নিয়ে গবেষণা করতে গিয়ে তাঁরা বিভিন্ন শারীরিক পরিবর্তন লক্ষ্য করেছেন। মানুষের রক্তকোষে কী কী বদল আসছে, নজর রেখেছেন। সঙ্গে কত পা হাঁটছেন এক ব্যক্তি, তা-ও দেখা হয়েছে। ব্রিটেন, আমেরিকা ও রাশিয়ার অনেক মানুষকে নিয়ে চলেছে সমীক্ষা। দেখা গিয়েছে, বিভিন্ন এলাকার মানুষের মধ্যে বার্ধক্য আসার একই ধরনের কিছু প্রক্রিয়া আছে।
তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ