কমতে শুরু করেছে সবজির দাম

আপডেট: ডিসেম্বর ২, ২০১৬, ১০:২০ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক



নগরীর বাজারগুলোতে কমতে শুরু করেছে সবজির দাম। সরবরাহ স্বাভাবিক থাকায় ও শীতকালীন সবজি উঠায় বাজারগুলোতে দাম কমতে শুরু করেছে। ব্যবসায়ীরা বলছেন, সরবরাহ স্বাভাবিক থাকলে আগামী সপ্তায় বাজারে সবজির দাম আরো কমবে। বাজারে সবজির দাম কমায় স্বস্তি পেয়েছেন ক্রেতারাও।
গতকাল শুক্রবার সকালে নগরীর সাহেববাজার মাস্টারপাড়ার সবজি ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে,  এ সপ্তাহে বাজারে কিছু কিছু শাক-সবজির দাম কমেছে। তবে অল্প কিছু শাক-সবজির দাম বেড়েছে। দাম হ্রাস পাওয়া সবজির গুলোর মধ্যে রয়েছে, শশা, শিম, মিষ্টি কুমড়া, পটল, আলু, কাঁচামরিচ প্রভৃতি। বৃদ্ধি পাওয়া সবজির মধ্যে রয়েছে,টমেটো ও কল্লা। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে, ফুলকপি, বাঁধাকপি, পেঁপে, বরবটি, রসুন পিঁয়াজ।
সবজি ব্যবসায়ীরা বলেন, বাজারে গত সপ্তাহে প্রতিকেজি শশা ৮০ থেকে ৮২ টাকা দরে বিক্রি হলেও গতকাল তা বিক্রি হয় প্রতিকেজি ৬০ টাকা দরে। শিম প্রতিকেজি ৩০ থেকে ৩৬ টাকা দরে গত সপ্তায় বিক্রি হলেও গতকাল তা বিক্রি হয় প্রতিকেজি ২৫ থেকে ২৬ টাকা দরে। মিষ্টি কুমড়া ৩০ থেকে ৩২ টাকা থেকে কমে ২৫ থেকে ৩০ টাকায়, পটল ২২ টাকা থেকে কমে ২০ টাকায়, আলু ৩২ টাকা থেকে কমে ২৮ থেকে ৩০ টাকায়, কাঁচামরিচ ৪০ টাকা থেকে কমে ৩০ টাকায়, বেগুন ৩০ টাকা থেকে কমে ২৫ টাকায় এবং আঁদা ৮০ টাকা থেকে কমে ৬০ টাকায়  গতকাল বিক্রি হয়। অন্যদিকে গত সপ্তায় প্রতিকেজি টমেটো ৮০ টাকা থেকে ৯০ টাকা দরে, কল্লা প্রতিকেজি ৫০ টাকা দরে,  বিক্রি হলেও গতকাল তা বিক্রি হয় প্রতিকেজি ৯০ টাকা থেকে ১০০ টাকা দরে। এছাড়াও বাজারে দাম অপরিবর্তত থাকা সবজিগুলোর মধ্যে রসুন প্রতিকেজি ১৬০ টাকা, পিঁয়াজ প্রতিকেজি ২০ টাকা, পেঁপে প্রতিকেজি ১৫ টাকা, বাঁধাকপি প্রতিকেজি ২৫ টাকা থেকে ৩০ টাকা, ফুলকপি প্রতিকেজি ৩০ থেকে ৩২ টাকা দরে এবং কাঁচা কলা প্রতি হালি ১০ টাকা থেকে ১৬ টাকা, লেবু চাইনা প্রতিহালি ৪টাকা থেকে ৫টাকা আর দেশি ১৬ টাকা দরে বিক্রি হয়।
এদিকে, বাজারে প্রতিকেজি চিনি ৬৮ টাকা, আটা ২৪ টাকা আর খোলা সোয়াবিন প্রতিলিটার ৮৪ টাকা এবং বোতলজাত সোয়াবিন ৯৮ টাকা দরে বিক্রি হয়। অপরদিকে গরুর মাংশ প্রতিকেজি ৪০০ টাকা আর খাশির মাংশ প্রতিকেজি ৬৫০ টাকা দরে বিক্রি হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ