করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জেলা ও উপজেলা কমিটির সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত

আপডেট: মার্চ ২৩, ২০২০, ১২:৩১ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


ভিডিও কনফারেন্সে বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক হামিদুল হক-সোনার দেশ

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জেলা ও উপজেলা কমিটির সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার রাজশাহী জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হকের সভাপতিত্বে জেলার সকল উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণের কার্যালয় থেকে উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত সমন্বয় সভায় অংশগ্রহণ করেন।
এ সময় জেলা প্রশাসক করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টি, বিদেশফেরতদের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত ও সার্বক্ষণিক নজরদারি এবং বিভিন্ন সামাজিক, ধর্মীয় অনুষ্ঠানসহ গণজমায়েত হয়- সেগুলো আলাপÑআলোচনার মাধ্যমে বন্ধ করার নির্দেশ দিয়ে বিভিন্ন দিকনির্দেশনা প্রদান করেন। জেলা প্রশাসক আরো বলেন, এখন আমাদের কাজ হল গত ১৫ দিনে বিদেশফেরত ও তাদের পরিবারের সদস্যদের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা। যদি কেউ হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে না চায় তাহলে তাকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে আনা। চায়ের দোকানসহ বিকল্প জায়গাগুলোতে যেন গণজমায়েত না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখার নির্দেশনা প্রদান করে তিনি বলেন, সকলকে বুঝাতে হবে, গ্রামের চৌকিদার, দফাদার ও বিভিন্ন এনজিকে কাজে লাগিয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে। প্রত্যেক অফিসের সামনে হ্যান্ড স্যানিটাইজার টেবিল রাখতে হবে। পৌরসভা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের বিভিন্ন হাট-বাজারে হাত ধোয়া অথবা হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারে উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। নাপিতদের মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। গণজমায়েত এড়িয়ে বাজার মনিটরিংয়ের নির্দেশ দিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাগণের উদ্দেশ্যে জেলা প্রশাসক বলেন, বর্তমানে কেউ কেউ আতঙ্কিত হয়ে প্রয়োজনের অতিরিক্ত পণ্য ক্রয় করে মজুত করছেন। তাদেরকে অতিরিক্ত পণ্য ক্রয় না করার জন্য বুঝাতে হবে। দেশে পর্যাপ্ত খাদ্য মজুত আছে বলে তিনি জানান। এ সময় তিনি সরকারি ছুটির দিনগুলোতে সংশ্লিষ্ট অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কর্মস্থল ত্যাগ না করার এবং প্রত্যেককে ব্যক্তিগত নিরাপত্তার জন্য সতর্ক থাকার অনুরোধ করেন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে জেলা সিভিল সার্জন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপারসহ জেলার বিভিন্ন পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ