করোনার ভ্যাকসিন সবার আগে নেবেন ট্রাম্প

আপডেট: জুলাই ২৩, ২০২০, ২:৫৪ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক :


মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রথমে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নেবেন বলে জানিয়েছেন। বুধবার দেশটির সংবাদমাধ্যম ফক্স নিউজের মেডিক্যাল কন্ট্রিবিউটর ডা. মার্ক সাইজেলকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানান তিনি।
ফক্স নিউজকে সাক্ষাৎকার দেয়ার কয়েক ঘণ্টা আগে দেশটির ওষুধপ্রস্তুতকারক কোম্পানি ফাইজারের সম্ভাব্য করোনা ভ্যাকসিনের ১০০ মিলিয়ন ডোজের অর্ডারের ঘোষণা দেন ট্রাম্প।
করোনার ভ্যাকসিন সবার আগে নিতে চাওয়ায় অনেকে তাকে স্বার্থপর মনে করতে পারেন বলে মন্তব্য করেন তিনি। এ ব্যাপারে ট্রাম্প বলেন, তিনি জনগণকে আশ্বস্ত করতে চান- তিনি স্বার্থপর হতে চান না। ট্রাম্প বলেন, আপনি জানেন, এটা কিভাবে কাজ করে। যদি আমি প্রথমেই ভ্যাকসিন নিই, তাহলে তারা বলবেন, আমি প্রথমে ভ্যাকসিন নিতে চাই; আমি খুবই স্বার্থপর।
পরে অন্যরা আবার বলবেন, আমি খুবই সাহসী একটি কাজ করেছি। ট্রাম্প বলেন, তারা যাই ভাবুক না কেন আমি অবশ্যই ভ্যাকসিন নিতে চাই। আমি এটা হয় প্রথমে অথবা শেষে নেবো। তিনি বলেন, আমি যদি ভ্যাকসিন না নিই, তাহলে তারা বলবেন- আমি ভ্যাকসিন কর্মসূচি বিশ্বাস করি না।
বুধবার সকালের দিকে হোয়াইট হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প বলেন, ফাইজারের সঙ্গে সরকারের চুক্তি হওয়ায় মার্কিন নাগরিকরা বিনামূল্যে করোনার ভ্যাকসিন পাবেন। আগামী বছরের মধ্যে ফাইজারের এই ভ্যাকসিন প্রয়োগের জন্য প্রস্তুত হতে পারে বলে জানান তিনি।
এদিকে, দেশটিতে করোনার প্রকোপ চলতি মাসের শুরুর দিকে কিছুটা কমে এলেও গত কিছুদিন ধরে আবারও বাড়তে শুরু করেছে। করোনার সবচেয়ে বিপর্যয়ের মুখে থাকা এই দেশটিতে প্রত্যেকদিন সংক্রমণের নতুন রেকর্ড হচ্ছে। অন্যদিকে, গত মে মাসের পর দেশটিতে এই প্রথম টানা দ্বিতীয় দিনের মতো গত দু’দিন এক হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছেন।
ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্স বলছে, বুধবার দেশটিতে টানা দ্বিতীয় দিনের মতো ১ হাজার ১০০ জনের বেশি মানুষের প্রাণ কেড়েছে করোনা। দেশটির আলবামা, ক্যালিফোর্নিয়া, নেভাদা এবং টেক্সাসে করোনায় সংক্রমণ এবং মৃত্যু বৃদ্ধি পেয়েছে।
দেশটিতে এখন পর্যন্ত এক লাখ ৪৩ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন; যা বিশ্বে একক কোনও দেশে সর্বোচ্চ প্রাণহানি। এছাড়া দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪৬ লাখের বেশি মানুষ। গত দুই সপ্তাহে দেশটির অন্তত ২৩টি অঙ্গরাজ্যে আগের দুই সপ্তাহের তুলনায় সংক্রমণ এবং মৃত্যু বেড়েছে বলে রয়টার্সের এক বিশ্লেষণে জানানো হয়েছে।
তথ্যসূত্র: জাগোনিউজ