করোনা টিকা নেওয়ার বয়সসীমা ১৮ হচ্ছে

আপডেট: জুলাই ২৩, ২০২১, ৫:৩২ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


করোনাভাইরাসের টিকা গ্রহণ করার সর্বনিম্ন বয়স ১৮ বছর করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম।
শুক্রবার (২৩ জুলাই) সকালে রাজধানীর মুগদা হাসপাতাল পরিদর্শনে এসে গণমাধ্যমকে এ কথা জানান তিনি।
এ সময় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বলেন, রাজধানীতে আরও ২-৩ জায়গায় ফিল্ড হাসপাতাল করার বিষয়টি সরকারের বিবেচনায় রয়েছে। জেলা পর্যায়েও প্রয়োজন হলে ফিল্ড হাসপাতাল করার নির্দেশনা দেওয়া আছে। প্রান্তিক পর্যায়ে টিকাদান সহজ করতে শুধু এনআইডি দেখিয়ে টিকা নেওয়ার ব্যবস্থা করা যায় কি না, তাও আমাদের বিবেচনায় রয়েছে।
উল্লেখ্য, গত ১৫ জুলাই স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানিয়েছিলেন, টিকা দেওয়ার বয়স ১৮-তে নামিয়ে আনার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। মূলত শিক্ষার্থীদের টিকার আওতায় আনতে এ পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কার্যক্রমের দেড় বছর লোকসান হয়েছে। ভবিষ্যতে এটি দেশের জন্য অকল্পনীয় ক্ষতি হবে। সেই সংকট যাতে না হয় সেজন্য দ্রুততম সময়ের মধ্যেই শিক্ষার্থীদের টিকার আওতায় আনার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।
প্রথমে করোনাভাইরাসের টিকা গ্রহণের বয়সসীমা ছিল ন্যূনতম ৪০ বছর। গত ৭ জুলাই নতুন করে নিবন্ধন শুরুর সময় তা কমিয়ে ৩৫ বছর করা হয়। অর্থাৎ যাদের বয়স ৩৫ বছর বা তার বেশি, কেবল তারাই সুরক্ষা প্ল্যাটফর্মের ওয়েবসাইটে গিয়ে টিকার জন্য নিবন্ধন করতে পারতেন। পরে আবার সেটা কমিয়ে ৩০ বছর করা হয়। চলতি বাস্তবতায় সেই বয়সসীমা ১৮ তে আনার সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে সরকার।
গত একবছরের বেশি সময়ে দেশে করোনাভাইরাসে ১৮ হাজার ৬৮৫ জন মানুষ মারা গেছেন।
তথ্যসূত্র: রাইজিংবিডি

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ