‘করোনা’ তুমি অবসর নাও

আপডেট: October 15, 2020, 10:29 pm

আব্দুল মজিদ

‘করোনা’ তুমি কাঁপিয়ে দিয়েছো গোটা পৃথিবী
তুমি টালমাটাল করেছো প্রথম বিশ্ব
বেসামাল করে দিয়েছো দ্বিতীয় বিশ্বকে
তৃতীয় বিশ্বকেও করেছো রীতিমতো ছন্নছাড়া।
যাদের অঙ্গুলি হেলনে বিশ্বের তাবৎ হিংসে
বিদ্বেষ যুদ্ধ আর নিষেধাজ্ঞার বাড়াবাড়ি
তারাও আজ কেমন যেন ম্রিয়মাণ।
রাষ্ট্রনায়কদের রাতের ঘুম কেড়ে নিয়ে
মানসিক যন্ত্রণায় নিপতিত করেছো অবলীলায়
আক্রান্ত দেশের অর্থনীতিকে ভেঙ্গে চুরমার
করেছো অনেক আগেই
উন্নয়নের গতিকে করেছো রূদ্ধ।
মনে হচ্ছে গোটা মানবজাতির সাথে শুরু করেছো ক্ষমাহীন এক যুদ্ধ।
এখনও কি সাধ মেটেনি তোমার? আর কতো
দেখাবে তোমার শক্তির মহড়া?
রেলের চাকাকে তুমি দিয়েছো লাগামহীন বিশ্রাম
রাজপথের বুকের ওপর থেকে হাজারো শকটের
ভার কমিয়েছো ঢের।
সারা পৃথিবীর বায়ুপোতে ফেলে রেখেছো অসংখ্য অলস বিমানের সারি।
মানুষকে বিশ্রামে বিশ্রামে ক্লান্ত করে আবারও
বাধ্য করেছো হাড়ভাঙ্গা বিশ্রাম নিতে।
তুমি জানো কতো প্রেমিক প্রেমিকার পরিণয়কে
করে রেখেছো পেন্ডিং?
কতো শিশুর জন্মদিন পালনের আনন্দকে
রেখেছো বাক্সবন্দি?
মসজিদ মন্দির গীর্জা প্যাগোডাকে ভরে দিয়েছো সুনসান নীরবতায়।
রাস্তা ঘাট পার্ক সি বিচ বলতে গেলে আজ
মনুষ্য পদচারণাবিহীন।
খেটে খাওয়া মানুষদের তুমি কাঠ ফাটা রোদ্রের
মধ্যে রিলিফের লাইনে দাঁড় করিয়েছো
দিনের পর দিন।
প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে হুমড়ি খেয়ে পড়তে বাধ্য করেছো খাদ্য সংগ্রহের মিছিলে।
গৃহপালিত পশুপাখি চিড়িয়াখানার জন্তু-জানোয়ারদের খাদ্যের যোগান কমিয়েছো কতো জানো?
রাস্তার বুভুক্ষু কুকুরের করূণ চাহনি কি দেখতে পাও?
সমাজের সকল শ্রেণির মানুষ আজ অজানা
আতংকে গৃহবন্দি।
মানবতার সেবায় নিয়োজিত ডাক্তার স্বাস্থকর্মীসহ অন্যরাও আজ বিষম ক্লান্ত।
সার্বিক উৎপাদনের চাকাকে করে রেখেছো
চলৎশক্তিহীন মাসের পর মাস।
চারিদিকে মনে হচ্ছে শুধু ভীতির হাতছানি
আর শ্মশানের নীরবতা।
সারা পৃথিবীর মানুষ আজ বড়ই অসহায় দিশেহারা পথিকের ন্যায় কিংকর্তব্যবিমূঢ়।
সুতরাং বলাই যায় ‘করোনা’ তুমি আজ তোমার
মিশনে বেশ ‘সফল’?
তোমার পারফরম্যান্সের খ্যাতি আজ মধ্যগগনে।
অতএব তুমি এখন অবসরে যাও!
এটাই তোমার অবসর নেয়ার উপযুক্ত সময়।
তোমার ভয়াল ভাবমূর্তিকে অক্ষুণ্ন রাখতে
এখনই নির্বাসিত হও।
কারণ তুমি জানো মানবজাতি হারতে শেখেনি
তারা বসে নেই…
একদিন শিরদাঁড়া সোজা করে দাঁড়াবেই নিশ্চিত।
আজ হোক কাল হোক এ যুদ্ধে তোমাকে পরাজিত করেই ছাড়বে।
তাই পরাজিত হওয়ার আগেই তুমি পাততাড়ি গুটাও।