করোনা নিয়ন্ত্রণে করণীয় নির্ধারণে মেয়র লিটন ও এমপি বাদশার সাথে উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বৈঠক

আপডেট: June 29, 2020, 10:21 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক:


করোনা নিয়ন্ত্রণে মেয়র লিটন, সাংসদ বাদশাসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বৈঠক-সোনার দেশ

নগরীর করোনা নিয়ন্ত্রণ ও চিকিৎসাসেবা নিশ্চিতকরণ, কুরবানির পশুর হাট ব্যবস্থাপনায় করণীয় নির্ধারণে সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ও সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশার সাথে উর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তাবৃন্দের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (২৯ জুন) দুপুরে নগর ভবনে মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের সভাপতিত্বে তাঁর দপ্তরকক্ষে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। রাজশাহী সিটি করপোরেশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সভায় সভাপতির বক্তব্যে মেয়র বলেন, গত ঈদ পর্যন্ত নগরীর করোনা পরিস্থিতি ভালো ছিল। কিন্তু ঈদের পর থেকে পরিস্থিতির অবনতি ঘটেছে। এই মুহূর্তে করোনা নিয়ন্ত্রণে সম্মিলিত পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। মানুষকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে উৎসাহিত করতে হবে। বাজার ব্যবস্থাপনা, কুরবানি পশুর হাটের ব্যবস্থাপনা, চিকিৎসার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে এবং করোনা নিয়ন্ত্রণে যথাযথ করণীয় ঠিক করতে হবে।
সভায় সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, করোনা নিয়ন্ত্রণে মানুষের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা নিশ্চিতকরণ, বাজার ব্যবস্থাপনা, আগামী ঈদকে ঘিরে পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে। বাড়ির বাইরে মানুষের বের হওয়ার প্রবণতা কমাতে হবে।

সভায় বিভিন্ন গুরুত্বপুর্ণ আলোচনা ও মতামত তুলে ধরেন রাজশাহী মহানগর পুলিশ কমিশনার মো. হুমায়ুন কবির, জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক, রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা.গোপেন্দ্রনাথ আচার্য, রাসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরিফ উদ্দিন, সচিব আবু হায়াত মো. রহমতুল্লাহ, মেয়রের একান্ত সচিব মো. আলমগীর কবির প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় নাগরিকদের মাস্ক পরতে আরো বেশি উৎসাহিত করা, মার্কেট ও বাজার ব্যবস্থাপনা, কুরবানির পশুর হাটের ব্যবস্থাপনা, আগাম ও অনলাইনে পশু ক্রয়ে উৎসাহ প্রদান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে উৎসাহ প্রদান, এলাকা ভিত্তিক লকডাউন চালু করা যায় কিনা, প্রতিটি ওয়ার্ডে স্বেচ্ছাসেবী দল গঠন ও চিকিৎসা ব্যবস্থার উন্নতিকরণ, করোনায় আক্রান্তদের নিয়মিত খোঁজখবর রাখা ইত্যাদি বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।