কলম্বো টেস্টেও কেউ মেন্ডিস-থারাঙ্গা হবে : হেরাথ

আপডেট: মার্চ ১৫, ২০১৭, ১২:১৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



সুযোগ পেয়ে কাজে লাগানোও একটি বড় ব্যাপার। গল টেস্টে কুশল মেন্ডিস তা করে দেখিয়েছেন। রানের খাতাই খুলতে পারতেন না। ফিরে যেতে পারতেন প্রথম বল মোকাবেলা করেই। কিন্তু শুভাশিস রায়ের নো বলের কল্যাণে বেঁচে যান মেন্ডিস।
শেষ পর্যন্ত ব্যক্তিগত ইনিংসটাকে ১৯৪ রান পর্যন্ত নিয়ে যান লঙ্কান ব্যাটসম্যান। মেন্ডিসের সেঞ্চুরিতে ভর করে প্রথম ইনিংসে ৪৯৪ রান তোলে শ্রীলঙ্কা। জবাবে বাংলাদেশ থেমে যায় ৩১২ রানে। ফলোঅন এড়ান টাইগাররা।
দ্বিতীয় ইনিংসে শ্রীলঙ্কাকে দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি উপহার দেন উপুল থারাঙ্গা। খেলেছেন ১১৫ রানের ইনিংস। শ্রীলঙ্কা ৬ উইকেটে ২৭৪ রানে ইনিংস ঘোষণা করে। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ; ১৯৭ রানেই অলআউট। ফল- ৯৯তম টেস্টে টাইগাররা পরাজয় বরণ করেন ২৫৯ রানে।
আজ পি সারায় গড়াবে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট। এই ম্যাচেও মেন্ডিস-থারাঙ্গার ভূমিকায় কেউ আবির্ভূত হবেন। যাদের হাত ধরে বাংলাদেশের শততম টেস্টে জয় ছিনিয়ে নেবে স্বাগতিকরা। এমন প্রত্যাশায় লঙ্কান দলপতি রঙ্গনা হেরাথ।
ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে সে কথাই বললেন হেরাথ, ‘আমি ৬/৭ জন ব্যাটসম্যান নিয়ে খেলি। প্রতি ম্যাচে সবাই রান পাবে না। শুরুটা ভালো হওয়াই বড় কথা। সেটা হলে বড় স্কোর করতে পারবো। আগের ম্যাচে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছে কুশল মেন্ডিস ও উপুল থারাঙ্গা। সবাই রান পাবে, এ কথা বলবো না। আমি নিশ্চিত যে, কলম্বো টেস্টেও কেউ মেন্ডিস-থারাঙ্গা হবে।’
কলম্বো টেস্টেও সাফল্যের ধারাবাহিকতা ধরে চান হেরাথ, ‘একটি দলের জন্য জয়ের মানসিকতাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। আমি মনে করি, এটা আমাদের দলে আছে। ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তা কাজে লাগিয়েছিলাম। দলের প্রত্যেকেই একে অপরকে সহায়তা করছে। পরের ম্যাচে ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চাই।’