কাঁকনহাট পৌরসভায় মতবিনিময় সভা

আপডেট: September 6, 2020, 11:58 pm

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি


গোদাগাড়ীর কাঁকনহাট পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বিভিন্ন দলের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, শিক্ষক, বিভিন্ন ধর্মের ধর্মীয় নেতা, চাকরিজীবী, ব্যবসায়ী ও সুশিল সমাজের সাথে গতকাল রোববার মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কাঁকনহাট পৌর অডিটরিয়ামে কাঁকনহাট পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আব্দুল মজিদ অতিথিদের সাথে পৌরসভার উন্নয়ন, সমস্যা ও করণীয় বিষয় নিয়ে মতবিনিময় করেন।
উপস্থিত অত্র ওয়ার্ডের দুলাল উদ্দিন, সইজুদ্দিন, আলাউদ্দিন, মন্টু ও হালিম বলেন, মেয়র আব্দুল মজিদের নেতৃত্বে পৌরসভার অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে। রাস্তা, ড্রেন, সুপেয় পানির ব্যবস্থা, মসজিদ, মন্দির, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, গীর্জা এবং বিভিন্ন খেলার মাঠের উন্নয়ন হয়েছে। এছাড়াও তাদের ওয়ার্ড ছাড়াও প্রতিটি ওয়ার্ড আলোকিত করণ করেছেন তিনি। এর পরেও যেগুলো কাজ রয়েছে সেগুলো হচ্ছে চলমান প্রক্রিয়া বলে জানান তারা। এছাড়াও কিছু বিষয়ে কাজ করার জন্য মেয়রের নিকট উত্থাপন করলে সেগুলো দ্রুত সময়ে সমাধান করার কথা বলেন মেয়র ।
মেয়র বলেন, পৌরসভা প্রতিষ্ঠাকাল থেকে তিনি পৌরবাসীর সেবা করে যাচ্ছেন। ইতোমধ্যে এই পৌরসভাকে তিনি প্রথম শ্রেণিতে উন্নিত করেছেন। বাড়িয়েছেন সেবার মান। এই করোনা ভাইরাসেও তিনি থেমে নেই। সর্বদা মানুষের পাশে রয়েছেন। করোনায় বেকার হয়ে পড়া, কর্মহীন, অসহায় মানুষের মধ্যে সরকারী ও নিজ উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ ও পৌরসভার সকল রাস্তা জীবানুমুক্ত রাখতে সর্বদা জীবানুনাশক স্প্রে করেছেন। এখনো তা চরমান রয়েছে। সেইসাথে করোনা ভাইরাস থেকে জনগণকে সচেতন করতে মাইকিং ও লিফলেট বিতরণ করেছেন। তিনি বলেন, জনগণ ভাল থাকলে তিনিও ভাল থাকবেন। কারণ জনগণ তাদের সেবা করার জন্য তাঁকে বার বার ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন।
তিনি আরো বলেন, সরকারের সিদ্ধান্ত মোতাবেক আগামী ডিসেম্বর কিংবা জানুয়ারী ২০২১ সালে পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচন হচ্ছে একটি গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন। বর্তমান সরকার জনগণকে সুখে, শান্তিতে ও নিরাপদে রাখতে কাজ করে যাচ্ছেন। কেউ যেন না খেয়ে না থাকে তার ব্যবস্থা করেছেন। গোদাগাড়ী উপজেলাকে শতভাগ সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর (ভাতা প্রদান) মধ্যে নিয়ে এসেছেন সরকার। আর এরজন্য কাজ করেছেন তানোর-গোদাগাড়ী আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরী। তিনি সংসদ সদস্যকে ধন্যবাদ জানান। বর্তমান সরকার জনগণের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছেন। এখন কেউ আর না খেয়ে থাকেনা।
মেয়র আরো বলেন, বর্তমান সরকার দুর্নীতি, মাদক ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন। অন্যায় করে কেউ রেহাই পাচ্ছেনা। সরকারী দলের হলেও তাদের কোন রেহাই নাই। সরকারের এই সকল সাফল্য ধরে রাখতে আসছে পৌর নির্বাচনে দলীয় মনোনীত প্রার্থীকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে উপস্থিত জনগণের প্রতি অনুরোধ করেন। সেইসাথে এখন থেকেই নির্বাচনের জন্য কাজ করার আহবান জানান মেয়র। এসময়ে অন্যদের মধ্যে পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম ও পৌর কৃষকলীগের সভাপতি কল্লোল মোল্লা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ