কাটাছেঁড়া ছাড়াই ভাঙা হাঁটুর অস্ত্রোপচার হলো চাঁপাইনবাবগঞ্জ হাসপাতালে

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২০, ১২:৩৮ পূর্বাহ্ণ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি


কাটাছেঁড়া ছাড়াই হাঁটুর অস্ত্রোপচার করছেন চিকিৎসকরা সোনার দেশ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে নাচোল উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের খুরশেদ এলাকার মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় জিয়ারুল (৪২) নামে এক রোগির প্রথমবারের মত ইলিজারভ পদ্ধতিতে ভাঙা হাটুর সফল অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে সদর হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে এ সফল অস্ত্রোপচার করেন হাসপাতালের কনসালটেন্ট অর্থোপেডিক্স সার্জারি ডা. ইসমাইল হোসেন। এসময় তার সঙ্গে সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. নাদিস সরকার ছিলেন। অস্ত্রোপচারের পর জিয়ারুল সুস্থ আছেন। ডা. ইসমাইল হোসেন জানান, এখন থেকে নিয়মিত এ অস্ত্রপচার করার চেষ্টা করবেন। যদিও সদর হাসপাতালে এ অপারেশনের যন্ত্রপাতি নাই তিনি ব্যক্তিগতভাবে যন্ত্রপাতি এনে এ অপারেশন করেছেন। তিনি আরো জানান, রাশিয়ায় আবিস্কৃত ইলিজারোভ অর্থোপেডিক্স শাস্ত্রের একটি চিকিৎসা পদ্ধতি। অর্থোপেডিক্স এ অন্য গতানুগতিক চিকিৎসার যেখানে শেষ, ইলিজারোভ চিকিৎসার সেখানে শুরু। এটা এমন এক পদ্ধতি যেখানে কেটে অপারেশন করতে হয়না। এরপর রিংয়ের সাহায্যে সেই তারগুলোকে আটকিয়ে এক ধরনের টানার ব্যবস্থা করা হয়। তারগুলো ইলেকট্রো ম্যাগনেটিক তরঙ্গের মত কাজ করে। অপারেশনের পরের দিন থেকেই রোগী হাঁটতে পারবে। এই অভিনব পদ্ধতির মাধ্যমে হাড় জোড়া লাগাতে সময় লাগে গড়ে ৪-৬ মাস। ডায়াবেটিক রোগীদের জন্য এ অপারেশন সুবিধাজনক।
এ ব্যাপারে সিভিল সার্জন ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরী জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রয়োজনীয় জনবল থাকলে আরো ভাল অপারেশন করা যাবে। ১শ’ শয্যার জনবল অনুযায়ী এখনো চিকিৎসক নেই। বিশেষ করে পুরো জেলাতে মাত্র ১জন অ্যানেসথিয়া চিকিৎসক। এছাড়া, চক্ষু, নাক, কান ও গলা বিশেষজ্ঞ না থাকায় চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সাধারণ মানুষ।