কাবুলের সামরিক হাসপাতালে বন্দুকধারীদের হামলা

আপডেট: মার্চ ৯, ২০১৭, ১২:০৬ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের কাছে একটি সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসকের ছদ্মবেশে ধরে আসা বন্দুকধারীরা হামলা চালিয়েছে।
বুধবারের এ ঘটনায় হাসপাতাল ভবনের ভিতরে তাদের সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর কয়েক ঘন্টা ধরে বন্দুক লড়াই চলে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তা ও প্রত্যক্ষদর্শীরা।
৪০০ শয্যার সরদার মোহাম্মদ দাউদ খান হাসপাতালের পেছন দিকে এক আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণের মাধ্যমে হামলা শুরু হয়। অপর তিন হামলাকারী স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র ও হাতবোমা নিয়ে হাসপাতাল ভবনে প্রবেশ করে বলে এক নিরাপত্তা কর্মকর্তা জানিয়েছেন।
চিকিৎসকের পোশাক পরা ওই বন্দুকধারীরা হাসপাতাল ভবনের ওপর তলায় অবস্থান নিয়ে ঘটানস্থলে উপস্থিত হওয়া স্পেশাল ফোর্সের সঙ্গে বন্দুক লড়াইয়ে লিপ্ত হয় বলে জানান তিনি।
হাসপাতালের চারদিকের ব্যস্ত সড়কগুলো বন্ধ করে দিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী। স্পেশাল ফোর্সের সৈন্যরা হেলিকপ্টার থেকে হাসপাতালের মূল ভবনের ছাদে নেমেছেন। দুপক্ষের লড়াই চলার মধ্যেই হাসপাতালের ভিতরে থেকে একটি বড় ধরনের বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে।
আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র দাওলাত ওয়াজিরি বলেছেন, “সেখানে আমাদের বাহিনীগুলো আছে এবং ব্যাপক লড়াই চলছে।”
এক হামলাকারী নিহত হলেও অপর দুই হামলাকারী প্রতিরোধ চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি এক সৈন্য নিহত ও তিনজন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন।
দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র অন্তত তিনজন নিহত ও ৬০ জনের বেশি আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন। আহতদের হাসপাতালে নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।
এই হামলার দায় অস্বীকার করে এর সঙ্গে তারা ‘জড়িত’ নয় বলে দাবি করেছে তালেবানের এক মুখপাত্র।- বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ