কাবুলে আত্মঘাতী হামলায় নিহত তালিবানের ধর্মীয় গুরু হাক্কানি

আপডেট: আগস্ট ১২, ২০২২, ৫:২৪ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


কাবুলে আত্মঘাতী হামলায় মৃত্যু হল তালিবান ধর্মীয় গুরু শেখ রহিমুল্লা হাক্কানির। আইসিসের অন্যতম মুখপাত্র বিলাল করিমি তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। পাশাপাশি আফগান সংবাদমাধ্যম টোলো নিউজ তাদের টুইটারেও হাক্কানির মৃত্যুসংবাদ জানিয়েছে। তালিবানের তরফেও টোলো নিউজের খবরটির সত্যতা মেনে নেওয়া হয়েছে।

জানা গিয়েছে, কাবুলের একটি স্কুলে ধর্মীয় অনুষ্ঠান চলাকালীন আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ ঘটানো হয় বৃহস্পতিবার। সেই বিস্ফোরণেই হাক্কানির মৃত্যু হয়েছে। এক ব্যিিক্ত, যার একটি পা আগে দুর্ঘটনায় উড়ে গিয়েছিল সে প্লাস্টিকের কৃত্রিম পায়ের মধ্যেই বিস্ফোরক এনে হামলা চালায়।

কোন জঙ্গি গোষ্ঠী এই বিস্ফোরণের পিছনে রয়েছে তা এখনও জানা যায়নি। জানা যাচ্ছে, বিস্ফোরণের সময় ওই অনুষ্ঠানে ভাষণ দিচ্ছিল হাক্কানি। আচমকাই বিস্ফোরণে চারপাশ কেঁপে ওঠে। আর তখনই ঘটনাস্থলে প্রাণ হারায় তালিবানের ধর্মীয় গুরু।

হাক্কানি আফগানিস্তানের তালিবান সরকারের একজন সমর্থক ছিল। পাশাপাশি জঙ্গি গোষ্ঠী আইসিসের কড়া সমালোচকও ছিল এই ধর্মীয় নেতা। ফলে তার মৃত্যুতে আইসিসের জড়িত থাকার সম্ভাবনাকে অস্বীকার করা যাচ্ছে না। গত আগস্টে আফগানিস্তানের দখল নেয় তালিবান।

তারপর থেকে গত এক বছরে হাক্কানিই তালিবানের সর্বোচ্চ পর্যায়ের নেতা, যার মৃত্যু হল জঙ্গি হামলায়। এক বর্ষীয়ান তালিবান নেতা সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে হাক্কানির মৃত্যু সম্পর্কে বলতে গিয়ে জানিয়েছে, ”এই মৃত্যু আফগানিস্তানের জন্য খুব বড় ক্ষতি।” সেই সঙ্গে ওই নেতা এও জানিয়েছে, কারা এই হামলার পিছনে তা খুঁজে বের করতে তদন্ত শুরু করা হয়েছে ইতোমধ্যেই।

মাত্র কয়েকদিন আগেই আফগানিস্তানে মার্কিন ড্রোন হামলায় মারা যায় আল কায়দা প্রধান আয়মান আল-জওয়াহিরি। কাবুলের কাছে আল কায়দার একটি ঘাঁটিতে লুকিয়ে ছিল ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার হামলার অন্যতম চক্রী। সেখানেই ড্রোন হামলায় নিহত হয় সে। এই ঘটনার কয়েক দিনের মধ্যেই এবার হাক্কানির মতো গুরুত্বপূর্ণ তালিবান ধর্মগুরুর মৃত্যু হল।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন