কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের প্রতিষ্ঠানে অনলাইনে ভর্তি আবেদন শুরু।। আবেদনের শেষ তারিখ ১৪ জুন

আপডেট: জুন ৩, ২০১৭, ১২:২২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে কারিগরি সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে চার বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং, ডিপ্লোমা ইন সার্ভে ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সে ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। গত সাত মে-২০১৭ কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব (ভারপ্রাপ্ত) মো আলমগীর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে কারিগরি শিক্ষাক্ষেত্রে ভর্তির নীতিমালা প্রকাশ করেন।
বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের অনলাইনে আবেদনের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা যাবে। কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের ওয়েবসাইটwww.bteb.gov.bd, www.btebadmission.gov.bd থেকে অনলাইনে সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভর্তির জন্য শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে হবে।
রাজশাহীতে করিগরি ডিপ্লোমা ও সার্ভে ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ভর্তির বিষয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন, ভর্তির জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের আবেদনের কোন সংযোগ নেই। সবকিছু কারিগরি শিক্ষাবোর্ড বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ভর্তির যাবতীয় তথ্য অনলাইনে প্রকাশ করেছে। তারপর ভর্তিইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা আবেদনের প্রেক্ষিতে মেধাক্রম অনুসারে ভর্তির সুযোগ পাবে। মেধাক্রম অনুসারে শিক্ষার্থীরা যে প্রতিষ্ঠানে ভর্তির সুযোগ পাবে সে এসে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে ভর্তি হতে পারবে।
কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে রাজশাহী পলিটেকনিক ও মহিলা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটে ভর্তির জন্য আবেদনের সময়সীমা ২২ মে থেকে ১৪ জুন-২০১৭ রাত ১১ টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত (ফরম পূরণের ন্যূনতম এক ঘন্টা পূর্বে টাকা জমা দিতে হবে প্রথম ও দ্বিতীয় শিফটে)। ২০ জুন এসএমএসের মাধ্যমে ও ওয়েবসাইটে প্রথম ও দ্বিতীয় শিফটের ফলাফল প্রকাশ করা হবে। মূল মেধা তালিকা থেকে ২১ থেকে ৩০ জুন ভর্তি করা হবে। ৩ থেকে ১৫ জুলাই পর্যান্ত অপেক্ষমান (মেধাক্রম) তালিকা থেকে (আসন শূন্য থাকা সাপেক্ষে) । প্রথম ও দ্বিতীয় শিফটের ক্লাস শুরু হবে ১ আগস্ট-২০১৭।
এদিকে নগরীর মনিচত্বর এলাকার সোনাদিঘি মার্কেটের দোতালা মিডিয়া কম্পিউটার বিপ্লব বলেন, রাজশাহীতে কারিগরি শিক্ষাক্ষেত্রে সরকারি প্রতিষ্ঠানে ভতির জন্য অনলাইনে আবেদন করছে শিক্ষার্থীরা। প্রতিদিনই শিক্ষার্থীরা তাদের পছন্দের কলেজগুলোতে আবেদনের জন্য ভীড় করছেন। কারিগরি সরকারি প্রতিষ্ঠানে বেশিরভাগ শিক্ষার্থী আবেদন করছেন। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত আবেদন ফরম পূরণ করার কাজে ব্যস্ত থাকতে হচ্ছে।
এবছর ভর্তির জন্য ২০১৫, ২০১৬ ও ২০১৭ সালের এসএসসি ও সমমানের এবং ছেলেদের ক্ষেত্রে সাধারণ গণিত বা উচ্চতর গণিতে কমপক্ষে জিপিএ ৩.০০ সহ ন্যূনতম ৩.৫০ জিপিটএ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা এবং মেয়েদের ভর্তির ক্ষেত্রে সাধারণ গণিত বা উচ্চতর গণিতে কমপক্ষে জিপিএ ৩.০০ সহ ন্যূনতম ৩.০০ জিপিটএ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা এবং ‘ও’ লেভেলে যেকোন একটি বিষয়ে ‘সি’ গ্রেড ও গণিতসহ যেকোন দুটি বিষয়ে ‘ডি’ গ্রেডে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবে। এসএসসি সহ বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ড কর্তৃক অনুমোদিত দুই বছর ট্রেড কোর্স প্রার্থীরাও আবেদন করতে পারবে। তবে আবেদন ফরম জমা দেয়ার শেষ তারিখে প্রার্থীর বয়স অনুর্ধ্ব ২২ বছর হতে হবে।
রাজশাহী পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটে ৮ টি বিভাগ রয়েছে। এরমধ্যে সিভিল ১০০, ইলেট্রিক্যাল ১০০, মেকানিক্যাল ১০০, পাওয়ার ৫০০, ইলেকট্রনিক্স ৫০, ইলেকট্রো মেডিক্যাল ৫০, কম্পিউটার ৫০ ও মেকাট্রনিক্স টেকনোলজিতে সিট বরাদ্দ এবং রাজশাহী মহিলা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটে ইলেকট্রো মেডিকেল টেকনোলজিতে ৫০, আর্কিটেকচার ও ইনটিরিয়র ডিজাইন টেকনোলজি ৫০, ইলেকট্রনিক্স টেকনোলজিতে ৫০ ও ফুড টেকনোলজিতে ৫০ টি সিট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।
এছাড়া স্বাস্থ্য অধিদফতরের স্ট্রেট মেডিকেল ফ্যাকালটির অধীনে এই ইন্সিটিউট অফ হেলথ টেকনোলজিতে (আইএইচটি) ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদনের মাধ্যমে ৩২৬ টি সিট পূরণ করা হবে। ৭টি অনুষদের প্রত্যেকটিতে ৫০ টি করে সিট বরাদ্দ রয়েছে। এরমধ্যে একটি অনুষদে ২৬ টি সিট বরাদ্দ রয়েছে। এ ইন্সটিটিউটে মুক্তিযোদ্ধা কোটা ৫টি ও উপজাতি কোটায় ১ জন শিক্ষার্থী ভর্তি হতে পারবে। আনলাইনে আবেদনের পর আবেদনকারীদের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার মধ্যে থাকবে বাংলা ১০, ইংরেজি ১৫, গণিত ১৫, পদার্থ ১৫, রসায়ন ১৫, জীববিজ্ঞান ১৫, সাধারণ জ্ঞান ১০ মার্কের পরীক্ষা নেয়া হবে এবং প্রাপ্ত বিষয়ের ওপর ২০ মার্কস যোগ হবে। কৃতকার্য শিক্ষার্থীরা প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রদান করে প্রতিষ্ঠানে ভর্তির জন্য সুযোগ পাবে।
এদিকে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং সার্ভেয়িং টেকনোলজি রাজশাহী তে ভর্তির জন্য আনলাইনে আবেদন শুরু হয়েছে। অনলাইনে আবেদনের সময়সীমা (ফরম পূরনের ন্যূনতম ২০ মিনিট পূর্বে টাকা জমা দিতে হবে) ২৯ মে থেকে ১৮ জুন-২০১৭ রাত ১১ টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত। ফলাফল প্রকাশ এসএমএসের মাধ্যমে ও ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে। মূল মেধা তালিকা হতে ২৩ জুন থেকে ২ জুলাই-২০১৭ রাত ১১ টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত। অপেক্ষমান (মেধাক্রম) তালিকা হতে (আসন শূন্য থাকা সাপেক্ষে) ৫ জুলাই হতে ১৮ জুলাই-২০১৭ পর্যন্ত ভর্তি করা হবে। ক্লাস শুরুর তারিখ ১ আগস্ট-২০১৭।
এছাড়া বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে অনলাইনে আবেদনের সময়সীমা (ফরম পূরনের ন্যূনতম ২০ মিনিট পূর্বে টাকা জমা দিতে হবে) ২৯ মে থেকে ১৮ জুন-২০১৭ পর্যন্ত ও ১ জুলাই থেকে ২০ জুলাই-২০১৭, ফলাফল প্রকাশ (এসএমএসের মাধ্যমে ও ওয়েবসাইটে) ২২ জুন ও ২৪ জুলাই-২০১৭, ভর্তির সময়সীমা মুল মেধা তালিকা হতে ২৩ জুন হতে ২ জুলাই-২০১৭ রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত ও ২৫ জুলাই হতে ৩০ জুলাই-২০১৭ রাত ১১ টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত এবং ক্লাস শুরুর তারিখ ১ আগস্ট-২০১৭।
অনলাইনে আবেদনের ক্ষেত্রে ১৫০ টাকা ডাচ বাংলা ব্যাংকের মাধ্যমে জমাদান সাপেক্ষে পছন্দক্রম অনুযায়ী সর্বোচ্চ ১০ টি টেকনোলজি/ ট্রেড এ আবেদন করতে পারবে। সরকারি প্রতিষ্ঠান সমূহে কোটা অনুসরন করে ও আবেদনপত্রে বর্ণিত পছন্দের ভিত্তিতে ভর্তিল নীতিমালা অনুযায়ী শিক্ষার্থী ভর্তি করা যাবে। প্রার্থী নির্বাচনে কোন ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে না।
কেবলমাত্র এসএসসি বা সমমান পরীক্ষা ফলাফলের ভিত্তিতে প্রার্থী নির্বাচন করা হবে। ভর্তির জন্য নির্ধারিত আবেদনপত্রে অনলাইনের মাধ্যমে দাখিল করতে হবে। ভর্তির জন্য আবেদন ফরম, ভর্তির নির্দেশিকা ও আবেদনের নিয়মাবলী বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ড এর ওয়েবসাইট (www.bteb.gov.bd, www.btebadmission.gov.bd) পাওয়া যাবে।
ফি জমা দেয়ার পদ্ধতি : যেসকল মোবাইল ফোনে ডাচ বাংলার ‘রকেট’ সার্ভিস চালু আছে সেসকল মোবাইল ফোন দ্বারা নি¤্নরে পদ্ধতিতে আবেদনের ফি প্রদান করা যাবে, ধাপ-১ উল্লেখিত সুবিধাসমূহ মোবাইলের ম্যাসেজ অপসন থেকে *৩২২# ডায়াল করতে হবে। ডায়াল সফল হলে স্ক্রীন ১ : এর মেনুটি আসবে এবং ধাপ ২ : অপসন-১ payment নির্বাচন করলে স্ত্রীন ২ : দেখা যাবে।